ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবশেষে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৮:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ মে ২০২৩
  • / ৯০ বার পড়া হয়েছে

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

বহু খড়খুটা পুড়িয়ে অবশেষে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। কুলাউড়া শহরের বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জেলা পরিষদের বাস্তবায়নে নবনির্মিত দৃষ্টিনন্দন এ শহীদ মিনার নির্মাণের কাজ অচিরেই শুরু করা হবে বলে জেলা পরিষদ সূত্রের বরাত দিয়ে জানা গেছে।
জানা যায়, কুলাউড়া পৌর শহরের আধুনিক ডাকবাংলোর প্রবেশমুখে প্রাচীনতম একটি শহীদ মিনার রয়েছে। শহীদ মিনারটি পুরাতন হয়ে যাওয়ায় বর্তমানে জরাজীর্ণ অবস্থায় মহান ২১ ফেব্রুয়ারি সহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা হচ্ছে। মাঝে মধ্যে সংস্কার কাজ করে শহীদ দিবস সহ অন্যান্য অনুষ্ঠান পরিচালনার পাশাপাশি দীর্ঘদিন ধরে বৃহৎ আকারে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার নির্মাণের দাবি উপেক্ষিত ছিল। অবশেষে মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমানের আন্তরিক প্রচেষ্টায় কুলাউড়াবাসীর দীর্ঘদিনের উপেক্ষিত দাবি বাস্তবায়ন হচ্ছে।
মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান জানান, কুলাউড়ার শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য জেলা পরিষদ থেকে ৪২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। টেন্ডার আহবান করে ঠিকাদার নিয়োগ, ড্রয়িং ও ডিজাইনের কাজ শেষ করা হয়েছে।
তিনি আরও জানান, শহরের বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জেলার মধ্যে অন্যতম ও অত্যাধুনিক শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে শহীদ মিনার নির্মাণকাজ শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন।

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

x

অবশেষে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ

প্রকাশের সময় : ০৭:১৮:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ মে ২০২৩

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

বহু খড়খুটা পুড়িয়ে অবশেষে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। কুলাউড়া শহরের বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জেলা পরিষদের বাস্তবায়নে নবনির্মিত দৃষ্টিনন্দন এ শহীদ মিনার নির্মাণের কাজ অচিরেই শুরু করা হবে বলে জেলা পরিষদ সূত্রের বরাত দিয়ে জানা গেছে।
জানা যায়, কুলাউড়া পৌর শহরের আধুনিক ডাকবাংলোর প্রবেশমুখে প্রাচীনতম একটি শহীদ মিনার রয়েছে। শহীদ মিনারটি পুরাতন হয়ে যাওয়ায় বর্তমানে জরাজীর্ণ অবস্থায় মহান ২১ ফেব্রুয়ারি সহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা হচ্ছে। মাঝে মধ্যে সংস্কার কাজ করে শহীদ দিবস সহ অন্যান্য অনুষ্ঠান পরিচালনার পাশাপাশি দীর্ঘদিন ধরে বৃহৎ আকারে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার নির্মাণের দাবি উপেক্ষিত ছিল। অবশেষে মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমানের আন্তরিক প্রচেষ্টায় কুলাউড়াবাসীর দীর্ঘদিনের উপেক্ষিত দাবি বাস্তবায়ন হচ্ছে।
মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান জানান, কুলাউড়ার শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য জেলা পরিষদ থেকে ৪২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। টেন্ডার আহবান করে ঠিকাদার নিয়োগ, ড্রয়িং ও ডিজাইনের কাজ শেষ করা হয়েছে।
তিনি আরও জানান, শহরের বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জেলার মধ্যে অন্যতম ও অত্যাধুনিক শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে শহীদ মিনার নির্মাণকাজ শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন।