ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলোচিত সাইফুল হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : ০২:৫৫:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৮৩ বার পড়া হয়েছে

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় প্রকৌশলী সাইফুর রহমান (২৭) হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি জলিল উদ্দিন তিন বছর আত্মগোপনে থাকার পর অবশেষে গ্রেপ্তার হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই’র এসআই হাসানুজ্জামান বুধবার ভোরে বিয়ানীবাজারের উত্তর আখাজনা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছেন।
বৃহস্পতিবার দুপুরে বড়লেখা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করে তদন্ত কর্মকর্তা রিমান্ড আবেদন করলে আদালত আসামিকে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। জলিল উদ্দিন বড়লেখা উপজেলার বর্নি ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামের মৃত মস্তাব আলীর ছেলে।
জানা গেছে, ২০২০ সালের ৩০ জুলাই ঈদুল আজহা উপলক্ষে সদ্য ডিপ্লোমা পাশ প্রকৌশলী সাইফুর রহমান সিলেট থেকে বড়লেখার সৎপুর গ্রামে পুরান বাড়িতে যান। রাতের খাবার শেষে প্রতিবেশি কামাল উদ্দিন জরুরি কাজের কথা বলে মুঠোফোনে কথা বলে সাইফুরকে তার সাথে দেখা করতে বললে রাতেই সে (সাইফুর) বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় দেখা করার উদ্দেশ্যে। পরদিন সকালে অপর প্রতিবেশি জয়নাল উদ্দিন প্রচারণা চালায় সাইফুরকে সাপে কেটেছে। বাইরে তালা দেওয়া পরিত্যক্ত ঘর থেকে লাশ উদ্ধার করে। পরে মৃতদেহের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন ও জয়নাল উদ্দিন গংদের অসংলগ্ন কথাবার্তায় আচরণে নিহতের স্বজনদের সন্দেহ হয়। রহস্যজনক এই মৃত্যুর ঘটনায় নিহতের ভাই এমদাদুর রহমান ওই বছরের ২৬ অক্টোবর জয়নাল উদ্দিন, কামাল উদ্দিন ও জলিল উদ্দিনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত কয়েক জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই’র এসআই হাসানুজ্জামান জানান, প্রায় ৩ বছর ধরে এজাহারনামীয় আসামি দেশের বিভিন্ন জেলায় আত্মগোপনে পালিয়ে ছিলেন। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় তার অবস্থান সনাক্ত ও নিশ্চিত হয়ে বুধবার ভোরে তাকে বিয়ানীবাজার এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেন। বৃহস্পতিবার আদালতে প্রেরণ করে রিমান্ড আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বলে নিশ্চিত করেন।
ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

x

আলোচিত সাইফুল হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার

প্রকাশের সময় : ০২:৫৫:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় প্রকৌশলী সাইফুর রহমান (২৭) হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি জলিল উদ্দিন তিন বছর আত্মগোপনে থাকার পর অবশেষে গ্রেপ্তার হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই’র এসআই হাসানুজ্জামান বুধবার ভোরে বিয়ানীবাজারের উত্তর আখাজনা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছেন।
বৃহস্পতিবার দুপুরে বড়লেখা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করে তদন্ত কর্মকর্তা রিমান্ড আবেদন করলে আদালত আসামিকে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। জলিল উদ্দিন বড়লেখা উপজেলার বর্নি ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামের মৃত মস্তাব আলীর ছেলে।
জানা গেছে, ২০২০ সালের ৩০ জুলাই ঈদুল আজহা উপলক্ষে সদ্য ডিপ্লোমা পাশ প্রকৌশলী সাইফুর রহমান সিলেট থেকে বড়লেখার সৎপুর গ্রামে পুরান বাড়িতে যান। রাতের খাবার শেষে প্রতিবেশি কামাল উদ্দিন জরুরি কাজের কথা বলে মুঠোফোনে কথা বলে সাইফুরকে তার সাথে দেখা করতে বললে রাতেই সে (সাইফুর) বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় দেখা করার উদ্দেশ্যে। পরদিন সকালে অপর প্রতিবেশি জয়নাল উদ্দিন প্রচারণা চালায় সাইফুরকে সাপে কেটেছে। বাইরে তালা দেওয়া পরিত্যক্ত ঘর থেকে লাশ উদ্ধার করে। পরে মৃতদেহের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন ও জয়নাল উদ্দিন গংদের অসংলগ্ন কথাবার্তায় আচরণে নিহতের স্বজনদের সন্দেহ হয়। রহস্যজনক এই মৃত্যুর ঘটনায় নিহতের ভাই এমদাদুর রহমান ওই বছরের ২৬ অক্টোবর জয়নাল উদ্দিন, কামাল উদ্দিন ও জলিল উদ্দিনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত কয়েক জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই’র এসআই হাসানুজ্জামান জানান, প্রায় ৩ বছর ধরে এজাহারনামীয় আসামি দেশের বিভিন্ন জেলায় আত্মগোপনে পালিয়ে ছিলেন। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় তার অবস্থান সনাক্ত ও নিশ্চিত হয়ে বুধবার ভোরে তাকে বিয়ানীবাজার এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেন। বৃহস্পতিবার আদালতে প্রেরণ করে রিমান্ড আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বলে নিশ্চিত করেন।