ঢাকা , সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

“আ.লীগের দখলে রাজধানীর অলিগলি”

  • রিপু
  • প্রকাশের সময় : ০৪:৫৪:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২২
  • ১০৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || আ.লীগের দখলে রাজধানীর অলিগলি|

বিএনপির সমাবেশের আগে রাজধানীর বিভিন্ন রাজপথ এবং অলিগলি নিজেদের দখলে রেখেছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা। শুক্রবার সকাল থেকে দলবেঁধে বিভিন্ন মোড়ে অবস্থান নেয় ক্ষমতাসীনরা।

বুধ ও বৃহস্পতিবারের মতো এদিনও প্রায় প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে মিছিল করেছেন নেতাকর্মীরা। পিকআপ এবং মোটরসাইকেল নিয়ে মহড়াও দেন তারা। ‘শেখ হাসিনার ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’, ‘বিএনপির দালালরা হুঁশয়ার, সাবধান’- এসব নানা স্লোগান দিতে শোনা যায় তাদের। আগামীকাল (শনিবার) সকাল থেকে রাজধানীর পাড়া-মহল্লায় সতর্ক অবস্থায় থাকবে ক্ষমতাসীন দল ও তাদের সহযোগী সংগঠনগুলো।

এদিকে শুক্রবার সকাল থেকেই বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনেও ছিল নেতাকর্মীদের ভিড়। বিকালে মহানগর নাট্যমঞ্চে সমাবেশ করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। এর মধ্য দিয়ে রাজধানীতে বড় ধরনের শোডাউন দিয়েছে তারা। ঢাকা দক্ষিণের বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ড থেকে পৃথক মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে আসতে দেখা যায়। নেতাকর্মীদের কেউ কেউ একই রঙের ক্যাপ (টুপি) মাথায় দিয়ে, কেউবা বাদ্য বাজিয়ে সমাবেশে আসেন। কারো হাতে ছিল লাঠি, বাঁশ বা কাঠের লাঠিতে টাঙানো জাতীয় পতাকা।

পুরান ঢাকা: পুরান ঢাকার রাজপথে শুক্রবার দিনভর বিক্ষোভ মিছিল করেছেন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। প্রতিটি ওয়ার্ড ও থানা থেকে এসব মিছিল বের হয়ে প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে। কিছু মিছিল আওয়ামী লীগের প্রধান কার্যালয় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে যায়। সরেজমিন দেখা গেছে, সকাল ১১টার দিকে ডিএসসিসির ৩৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুর রহমান মিয়াজীর নেতৃত্বে একটি মিছিল কোতোয়ালি থানার প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে। ঘাট শ্রমিক লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সহযোগী সংগঠন বিক্ষোভ মিছিল করে। এছাড়া বংশাল, সূত্রাপুর ও চকবাজার, ডেমরা, ওয়ারিতে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে।

মিরপুর: মিরপুরে দিনভর বিক্ষোভ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন। বিকাল ৪টায় মিরপুর ১, ২, ৬, ৭, ১০, ১১, ১২, ১৩ ও ১৪ নম্বরের মূল সড়কসহ বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় বিক্ষোভ করেছেন সংগঠনটির বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী। মিরপুর-১২ নম্বর বাসস্ট্যান্ডে অনুষ্ঠিত মিছিলে নেতৃত্ব দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ। এতে স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন। মিছিলটি পল্ল­বী ও রূপনগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। বিকালে গাবতলী ও মাজার রোডে ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আগা খান মিন্টুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের কয়েক হাজার নেতাকর্মী মিছিল করেন। মিছিলটি গাবতলী ও দারুস সালাম থানার বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

ভাটারা ও রামপুরা: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ভাটারা থানা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সভাপতি হাজী মো. ইসহাক মিয়ার নেতৃত্বে রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড থেকে কোকাকোলা পর্যন্ত মিছিল করেছেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। রামপুরা বাজার থেকে রামপুরা ব্রিজ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মিছিল করতে দেখা গেছে। একই সময়ে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে রাজধানীর মেরুল বাড্ডায়। এ সময় নেতাকর্মীদের ‘শেখ হাসিনা ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’সহ বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে দেখা যায়।

আব্দুল্লাহপুর: শুক্রবার সকাল থেকেই উত্তরা আব্দুল্লাহপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পুলিশ চেকপোস্টের পাশে মঞ্চ বানিয়ে অবস্থান নেয় ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা। এ সময় সমাবেশস্থল ঘিরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সক্রিয় অবস্থান লক্ষ করা গেছে। এর আগে বিকাল ৩টায় সংসদ-সদস্য হাবিব হাসানের নেতৃত্বে উত্তরাসহ আশপাশের বিভিন্ন থানা-ওয়ার্ড ও ইউনিট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উত্তরার আজমপুর আমির কমপ্লেক্সের সামনে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

মোহাম্মদপুর: মোহাম্মদপুর ও আদাবর এলাকাজুড়ে আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতারা বিক্ষোভ মিছিল করেন। শুক্রবার বিকালে ৪টা থেকে ঢাকা-১৩ আসনের মোহাম্মদপুর ও আদাবরের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিট কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিল শেষে মোহাম্মদপুর টাউন হল মসজিদের সামনে নেতাকর্মীরা জড়ো হন।

যুব মহিলা লীগ : রাজধানীর মিরপুরে মাজার গেটের সামনে বিজয় মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে। ঢাকা মহানগর উত্তর যুব মহিলা লীগের সভাপতি সাবিনা আক্তার তুহিনের নেতৃত্বে ৫ ডিসেম্বর থেকে প্রতিদিন সকাল-সন্ধ্যা সেখানে অবস্থান করছেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। তুহিনের নেতৃত্বে শুক্রবার সন্ধ্যায় মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবারও সারা দিন সেখানে নেতাকর্মীদের সতর্ক পাহারায় থাকবেন তিনি।

স্বেচ্ছাসেবক লীগ: ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপনের নেতৃত্বে ঢাকা-৫ নির্বাচনি আসনের বিভিন্ন স্থানে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে এ বিভিন্ন থানা-ওয়ার্ডে মিছিল হয়েছে। শুক্রবার প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে মিছিল হয়। শনিবারও সংগঠনের নেতাকর্মীরা পাড়া-মহল্লায় সতর্ক পাহারায় থাকবেন।

ছাত্রলীগ: রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকে মহড়া দিয়েছে ছাত্রলীগ। কেন্দ্রীয় ও মহানগর কমিটি না থাকায় বিক্ষিপ্তভাবে কেন্দ্র ও শাখাগুলোর নেতা ও প্রার্থীদের নেতৃত্বে মোটরসাইকেল মহড়া, বিভিন্ন স্পটে অবস্থান বা কোথাও কোথাও মিছিল করতে দেখা গেছে। পাশাপাশি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রাজু ভাস্কর্যে বিএনপি-জামায়াতের দুঃশাসনের খণ্ডচিত্র প্রদর্শনী ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে।

শনিবারও মাঠে থাকবে আওয়ামী লীগ: আগামীকাল শনিবারও সকাল থেকে সতর্ক অবস্থায় মাঠে থাকবে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো। ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল থেকেই অবস্থান নেবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নেতাকর্মীরা। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ এদিন সাভারে জনসভা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এছাড়া এদিন প্রতিটি পয়েন্টে সতর্ক পাহারায় থাকবে বলেও জানান ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ।

ঢাকার প্রবেশপথ যাত্রাবাড়ী ও উত্তরাতেও সতর্ক পাহারায় থাকবেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এছাড়া ঢাকা মহনগর আওয়ামী লীগের দুই অংশেরই থানা-ওয়ার্ডগুলোকে মোড়ে মোড়ে সংঘর্ষ এড়িয়ে সতর্ক অবস্থানে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের দলের কাউন্সিলরাও কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে মাঠে থাকবেন। এ বিষয়ে ইতোমধ্যে নেতাকর্মীদের দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক উইলিয়াম প্রলয় সমাদ্দার বাপ্পী এবং দক্ষিণের দপ্তর সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box
জনপ্রিয়

“আ.লীগের দখলে রাজধানীর অলিগলি”

প্রকাশের সময় : ০৪:৫৪:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || আ.লীগের দখলে রাজধানীর অলিগলি|

বিএনপির সমাবেশের আগে রাজধানীর বিভিন্ন রাজপথ এবং অলিগলি নিজেদের দখলে রেখেছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা। শুক্রবার সকাল থেকে দলবেঁধে বিভিন্ন মোড়ে অবস্থান নেয় ক্ষমতাসীনরা।

বুধ ও বৃহস্পতিবারের মতো এদিনও প্রায় প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে মিছিল করেছেন নেতাকর্মীরা। পিকআপ এবং মোটরসাইকেল নিয়ে মহড়াও দেন তারা। ‘শেখ হাসিনার ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’, ‘বিএনপির দালালরা হুঁশয়ার, সাবধান’- এসব নানা স্লোগান দিতে শোনা যায় তাদের। আগামীকাল (শনিবার) সকাল থেকে রাজধানীর পাড়া-মহল্লায় সতর্ক অবস্থায় থাকবে ক্ষমতাসীন দল ও তাদের সহযোগী সংগঠনগুলো।

এদিকে শুক্রবার সকাল থেকেই বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনেও ছিল নেতাকর্মীদের ভিড়। বিকালে মহানগর নাট্যমঞ্চে সমাবেশ করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। এর মধ্য দিয়ে রাজধানীতে বড় ধরনের শোডাউন দিয়েছে তারা। ঢাকা দক্ষিণের বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ড থেকে পৃথক মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে আসতে দেখা যায়। নেতাকর্মীদের কেউ কেউ একই রঙের ক্যাপ (টুপি) মাথায় দিয়ে, কেউবা বাদ্য বাজিয়ে সমাবেশে আসেন। কারো হাতে ছিল লাঠি, বাঁশ বা কাঠের লাঠিতে টাঙানো জাতীয় পতাকা।

পুরান ঢাকা: পুরান ঢাকার রাজপথে শুক্রবার দিনভর বিক্ষোভ মিছিল করেছেন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। প্রতিটি ওয়ার্ড ও থানা থেকে এসব মিছিল বের হয়ে প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে। কিছু মিছিল আওয়ামী লীগের প্রধান কার্যালয় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে যায়। সরেজমিন দেখা গেছে, সকাল ১১টার দিকে ডিএসসিসির ৩৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুর রহমান মিয়াজীর নেতৃত্বে একটি মিছিল কোতোয়ালি থানার প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে। ঘাট শ্রমিক লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সহযোগী সংগঠন বিক্ষোভ মিছিল করে। এছাড়া বংশাল, সূত্রাপুর ও চকবাজার, ডেমরা, ওয়ারিতে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে।

মিরপুর: মিরপুরে দিনভর বিক্ষোভ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন। বিকাল ৪টায় মিরপুর ১, ২, ৬, ৭, ১০, ১১, ১২, ১৩ ও ১৪ নম্বরের মূল সড়কসহ বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় বিক্ষোভ করেছেন সংগঠনটির বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী। মিরপুর-১২ নম্বর বাসস্ট্যান্ডে অনুষ্ঠিত মিছিলে নেতৃত্ব দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ। এতে স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন। মিছিলটি পল্ল­বী ও রূপনগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। বিকালে গাবতলী ও মাজার রোডে ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আগা খান মিন্টুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের কয়েক হাজার নেতাকর্মী মিছিল করেন। মিছিলটি গাবতলী ও দারুস সালাম থানার বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

ভাটারা ও রামপুরা: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ভাটারা থানা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সভাপতি হাজী মো. ইসহাক মিয়ার নেতৃত্বে রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড থেকে কোকাকোলা পর্যন্ত মিছিল করেছেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। রামপুরা বাজার থেকে রামপুরা ব্রিজ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মিছিল করতে দেখা গেছে। একই সময়ে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে রাজধানীর মেরুল বাড্ডায়। এ সময় নেতাকর্মীদের ‘শেখ হাসিনা ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’সহ বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে দেখা যায়।

আব্দুল্লাহপুর: শুক্রবার সকাল থেকেই উত্তরা আব্দুল্লাহপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পুলিশ চেকপোস্টের পাশে মঞ্চ বানিয়ে অবস্থান নেয় ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা। এ সময় সমাবেশস্থল ঘিরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সক্রিয় অবস্থান লক্ষ করা গেছে। এর আগে বিকাল ৩টায় সংসদ-সদস্য হাবিব হাসানের নেতৃত্বে উত্তরাসহ আশপাশের বিভিন্ন থানা-ওয়ার্ড ও ইউনিট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উত্তরার আজমপুর আমির কমপ্লেক্সের সামনে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

মোহাম্মদপুর: মোহাম্মদপুর ও আদাবর এলাকাজুড়ে আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতারা বিক্ষোভ মিছিল করেন। শুক্রবার বিকালে ৪টা থেকে ঢাকা-১৩ আসনের মোহাম্মদপুর ও আদাবরের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিট কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিল শেষে মোহাম্মদপুর টাউন হল মসজিদের সামনে নেতাকর্মীরা জড়ো হন।

যুব মহিলা লীগ : রাজধানীর মিরপুরে মাজার গেটের সামনে বিজয় মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে। ঢাকা মহানগর উত্তর যুব মহিলা লীগের সভাপতি সাবিনা আক্তার তুহিনের নেতৃত্বে ৫ ডিসেম্বর থেকে প্রতিদিন সকাল-সন্ধ্যা সেখানে অবস্থান করছেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। তুহিনের নেতৃত্বে শুক্রবার সন্ধ্যায় মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবারও সারা দিন সেখানে নেতাকর্মীদের সতর্ক পাহারায় থাকবেন তিনি।

স্বেচ্ছাসেবক লীগ: ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপনের নেতৃত্বে ঢাকা-৫ নির্বাচনি আসনের বিভিন্ন স্থানে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে এ বিভিন্ন থানা-ওয়ার্ডে মিছিল হয়েছে। শুক্রবার প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে মিছিল হয়। শনিবারও সংগঠনের নেতাকর্মীরা পাড়া-মহল্লায় সতর্ক পাহারায় থাকবেন।

ছাত্রলীগ: রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকে মহড়া দিয়েছে ছাত্রলীগ। কেন্দ্রীয় ও মহানগর কমিটি না থাকায় বিক্ষিপ্তভাবে কেন্দ্র ও শাখাগুলোর নেতা ও প্রার্থীদের নেতৃত্বে মোটরসাইকেল মহড়া, বিভিন্ন স্পটে অবস্থান বা কোথাও কোথাও মিছিল করতে দেখা গেছে। পাশাপাশি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রাজু ভাস্কর্যে বিএনপি-জামায়াতের দুঃশাসনের খণ্ডচিত্র প্রদর্শনী ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে।

শনিবারও মাঠে থাকবে আওয়ামী লীগ: আগামীকাল শনিবারও সকাল থেকে সতর্ক অবস্থায় মাঠে থাকবে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো। ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল থেকেই অবস্থান নেবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নেতাকর্মীরা। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ এদিন সাভারে জনসভা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এছাড়া এদিন প্রতিটি পয়েন্টে সতর্ক পাহারায় থাকবে বলেও জানান ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ।

ঢাকার প্রবেশপথ যাত্রাবাড়ী ও উত্তরাতেও সতর্ক পাহারায় থাকবেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এছাড়া ঢাকা মহনগর আওয়ামী লীগের দুই অংশেরই থানা-ওয়ার্ডগুলোকে মোড়ে মোড়ে সংঘর্ষ এড়িয়ে সতর্ক অবস্থানে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের দলের কাউন্সিলরাও কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে মাঠে থাকবেন। এ বিষয়ে ইতোমধ্যে নেতাকর্মীদের দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক উইলিয়াম প্রলয় সমাদ্দার বাপ্পী এবং দক্ষিণের দপ্তর সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box