ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইসলাম বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক অনুমোদন করে না, হাইকোর্ট

মনোয়ার ইমাম কলকাতা
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৮:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪
  • / ৭১ বার পড়া হয়েছে

ভারতের উত্তর প্রদেশের এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি মোহাম্মদ এ আর মাসদি ও শ্রী বাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চ পরিস্কার জানাল যে ইসলাম কোন ভাবে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে একত্র জীবন যাপনের অনুমোদন করে না।

আজ এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ স্নেহা দেবী যাদব ও মোহাম্মদ শাকিব এর বিরুদ্ধে দায়ের করা একটি মামলা শুনানির সময় বিচারপতিরা এই মন্তব্য করেন। ২০২০, সালে, মোহাম্মদ শাকিব আহমেদ ভালোবাসা করে বিবাহ করেন স্নেহা দেবী যাদবকে, এবং তারা বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে একত্র ভাবে জীবন যাপন করতে থাকে যা লিভ টুগেদার সমান। ভারতের জাতীয় আইনের মধ্যে লিভ টুগেদার রয়েছে যা অনুমোদন করে থাকে প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষ ও মহিলা ক্ষেত্রে।

কিন্তু মোহাম্মদ শাকিব আহমেদ দ্বিতীয় বিবাহ করেন ফরিদা খাতুনকে। এবং বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়া সম্পর্কে অনুমোদন দেয়নি কোর্ট এবং ২১ নাম্বার, অনুচ্ছেদ অনুসারে তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করতে দেওয়ার অধিকার নিয়ে যখন মামলা দায়ের হয় তখন বিচারপতি এ আর মাসদি ও শ্রী বাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চ শরিয়াতের আইন অনুযায়ী যা অবৈধ ঘোষণা করে একত্র জীবন যাপনের পূর্বের স্নেহা দেবী যাদব সাথে সংযুক্ত থাকার বিষয়ে। এবং বিবাহর পূর্বে একত্র জীবন যাপনের করার ক্ষেত্রে। তবে দ্বিতীয় বিবাহ করা চলবে না এমন কথা বলেননি বিচারপতিরা।

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

ইসলাম বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক অনুমোদন করে না, হাইকোর্ট

প্রকাশের সময় : ০৭:১৮:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪

ভারতের উত্তর প্রদেশের এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি মোহাম্মদ এ আর মাসদি ও শ্রী বাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চ পরিস্কার জানাল যে ইসলাম কোন ভাবে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে একত্র জীবন যাপনের অনুমোদন করে না।

আজ এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ স্নেহা দেবী যাদব ও মোহাম্মদ শাকিব এর বিরুদ্ধে দায়ের করা একটি মামলা শুনানির সময় বিচারপতিরা এই মন্তব্য করেন। ২০২০, সালে, মোহাম্মদ শাকিব আহমেদ ভালোবাসা করে বিবাহ করেন স্নেহা দেবী যাদবকে, এবং তারা বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে একত্র ভাবে জীবন যাপন করতে থাকে যা লিভ টুগেদার সমান। ভারতের জাতীয় আইনের মধ্যে লিভ টুগেদার রয়েছে যা অনুমোদন করে থাকে প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষ ও মহিলা ক্ষেত্রে।

কিন্তু মোহাম্মদ শাকিব আহমেদ দ্বিতীয় বিবাহ করেন ফরিদা খাতুনকে। এবং বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়া সম্পর্কে অনুমোদন দেয়নি কোর্ট এবং ২১ নাম্বার, অনুচ্ছেদ অনুসারে তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করতে দেওয়ার অধিকার নিয়ে যখন মামলা দায়ের হয় তখন বিচারপতি এ আর মাসদি ও শ্রী বাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চ শরিয়াতের আইন অনুযায়ী যা অবৈধ ঘোষণা করে একত্র জীবন যাপনের পূর্বের স্নেহা দেবী যাদব সাথে সংযুক্ত থাকার বিষয়ে। এবং বিবাহর পূর্বে একত্র জীবন যাপনের করার ক্ষেত্রে। তবে দ্বিতীয় বিবাহ করা চলবে না এমন কথা বলেননি বিচারপতিরা।