ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উপজেলা চেয়ারম্যানকে গুলির ঘটনায় আটক ৪

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৫৯:০১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ১৬৮ বার পড়া হয়েছে

নাসিম আজাদ, প্রতিদিনের পোস্ট || নরসিংদীর শিবপুরে বাড়িতে ঢুকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ খানকে গুলি করার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শিবপুর থানা পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ রোববার দিবাগত রাতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে এই ৪ জনকে আটক করেন। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিবপুর থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার। তবে এ ঘটনায় এখনো থানায় মামলা দায়ের করা হয়নি।

শনিবার ভোর সোয়া ৬টার দিকে শিবপুর থানা সংলগ্ন নিজ বাসার ড্রইং রুমে ঢুকে শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ খানকে গুলি করেন সন্ত্রাসীরা। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে প্রবীন এই রাজনিতিকের উপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে পুরো উপজেলা জুড়ে থম থমে অবস্থা বিরাজ করছে। আওয়ামীলীগ নেতাসহ সুশীল সমাজের লোকজনের মধ্যে চাপা ও ক্ষোভ বিরাজ করছেন । সন্দেহভাজন আটককৃতরা হলো ফরিদ,সাব্বির,সুমিত মোল্লা ও রানা।

শিবপুর থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, ঘটনার পর থেকে শিবপুর থানা পুলিশ,গোয়েন্দা পুলিশ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ সহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের যৌথ প্রচেষ্টায় বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়েছে। এই পর্যন্ত থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। আমরা আহত উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলেছি তিনি সুস্থ হয়ে অভিযোগ দায়ের করবেন। তাছাড়া এ বিষয়টি নিয়ে জেলা পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানাবেন।

এদিকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ খানকে ও সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সংসদ।

রোববার সকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে এই বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়। এসময় অতি দ্রুত সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা সহ এরূপ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বক্তারা। এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ( ভারপ্রাপ্ত ) মহসিন নাজিরের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সামসুল আলম রাখিল, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বুলু মাষ্টার, ডেপুটি কমান্ডার মোতালিব খান। প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

x

উপজেলা চেয়ারম্যানকে গুলির ঘটনায় আটক ৪

প্রকাশের সময় : ০৯:৫৯:০১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নাসিম আজাদ, প্রতিদিনের পোস্ট || নরসিংদীর শিবপুরে বাড়িতে ঢুকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ খানকে গুলি করার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শিবপুর থানা পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ রোববার দিবাগত রাতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে এই ৪ জনকে আটক করেন। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিবপুর থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার। তবে এ ঘটনায় এখনো থানায় মামলা দায়ের করা হয়নি।

শনিবার ভোর সোয়া ৬টার দিকে শিবপুর থানা সংলগ্ন নিজ বাসার ড্রইং রুমে ঢুকে শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ খানকে গুলি করেন সন্ত্রাসীরা। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে প্রবীন এই রাজনিতিকের উপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে পুরো উপজেলা জুড়ে থম থমে অবস্থা বিরাজ করছে। আওয়ামীলীগ নেতাসহ সুশীল সমাজের লোকজনের মধ্যে চাপা ও ক্ষোভ বিরাজ করছেন । সন্দেহভাজন আটককৃতরা হলো ফরিদ,সাব্বির,সুমিত মোল্লা ও রানা।

শিবপুর থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, ঘটনার পর থেকে শিবপুর থানা পুলিশ,গোয়েন্দা পুলিশ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ সহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের যৌথ প্রচেষ্টায় বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়েছে। এই পর্যন্ত থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। আমরা আহত উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলেছি তিনি সুস্থ হয়ে অভিযোগ দায়ের করবেন। তাছাড়া এ বিষয়টি নিয়ে জেলা পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানাবেন।

এদিকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ খানকে ও সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সংসদ।

রোববার সকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে এই বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়। এসময় অতি দ্রুত সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা সহ এরূপ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বক্তারা। এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ( ভারপ্রাপ্ত ) মহসিন নাজিরের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সামসুল আলম রাখিল, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বুলু মাষ্টার, ডেপুটি কমান্ডার মোতালিব খান। প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট