ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :

কীটনাশক পানে কিশোরের আত্মহত্যা

  • প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : ০২:৪৪:০৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ অগাস্ট ২০২৩
  • ৪৫ বার পড়া হয়েছে

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের রাজনগরে কীটনাশক পানে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে। তবে কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে জানাতে পারেনি পুলিশ ও নিহতের পরিবারের সদস্যরা। নিহতের কিশোরের নাম রুহিত মিয়া (১৫)। সে রাজনগর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের ককাশিপুর গ্রামের জহুর মিয়ার ছেলে। শনিবার (৫ আগস্ট) দিনের সাড়ে ১২টার দিকে নিজ বাড়িতে সে কীটনাশক পান করে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রের বরাত দিয়ে জানা যায়, শনিবার সকালে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে রুহিত মিয়া বাড়িতে কীটনাশক পান করে। তার গোঙ্গানির শব্দশুনে পরিবারের লোকজন গিয়ে দেখেন তার নাক ও মুখ দিয়ে সাদা ফেনা বের হচ্ছে। তাৎক্ষনিক তাকে মৌলভীবাজার সদর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে রাজনগর থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে হাসপাতালের ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়। তবে ঠিক কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তা জানাতে পারে নি পুলিশ ও নিহতের পরিবার।

নিহতের বড় ভাই সুমন মিয়া বলেন, খবর পেয়ে বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি রুহিতকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। পরে আমিও সেখানে যাই। ধারণা করছি, কীটনাশক (বিষ) পান করে তার মৃত্যু হয়েছে। কেন এমনটা করেছে জানি না!

রাজনগর থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় বলেন, ছেলেটির নাক-মুখ দিয়ে ফেনা বের হয়ে মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে কীটনাশক পান করে থাকতে পারে। মৃতদেহ ময়নাতদন্ত করার সকল কার্যক্রম সম্পন্ন। এঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

Facebook Comments Box
ট্যাগস :

জীবনের শেষ ভোরেও সংবাদপত্র তুলে দিয়েছেন চৌধুরী

কীটনাশক পানে কিশোরের আত্মহত্যা

প্রকাশের সময় : ০২:৪৪:০৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ অগাস্ট ২০২৩

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের রাজনগরে কীটনাশক পানে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে। তবে কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে জানাতে পারেনি পুলিশ ও নিহতের পরিবারের সদস্যরা। নিহতের কিশোরের নাম রুহিত মিয়া (১৫)। সে রাজনগর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের ককাশিপুর গ্রামের জহুর মিয়ার ছেলে। শনিবার (৫ আগস্ট) দিনের সাড়ে ১২টার দিকে নিজ বাড়িতে সে কীটনাশক পান করে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রের বরাত দিয়ে জানা যায়, শনিবার সকালে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে রুহিত মিয়া বাড়িতে কীটনাশক পান করে। তার গোঙ্গানির শব্দশুনে পরিবারের লোকজন গিয়ে দেখেন তার নাক ও মুখ দিয়ে সাদা ফেনা বের হচ্ছে। তাৎক্ষনিক তাকে মৌলভীবাজার সদর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে রাজনগর থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে হাসপাতালের ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়। তবে ঠিক কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তা জানাতে পারে নি পুলিশ ও নিহতের পরিবার।

নিহতের বড় ভাই সুমন মিয়া বলেন, খবর পেয়ে বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি রুহিতকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। পরে আমিও সেখানে যাই। ধারণা করছি, কীটনাশক (বিষ) পান করে তার মৃত্যু হয়েছে। কেন এমনটা করেছে জানি না!

রাজনগর থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় বলেন, ছেলেটির নাক-মুখ দিয়ে ফেনা বের হয়ে মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে কীটনাশক পান করে থাকতে পারে। মৃতদেহ ময়নাতদন্ত করার সকল কার্যক্রম সম্পন্ন। এঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

Facebook Comments Box