ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাছ কেটে ধ্বংসের ফলে পৃথিবীটা ছোট হয়ে আসছে!

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : ১২:৫১:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ অক্টোবর ২০২৩
  • / ১০০ বার পড়া হয়েছে

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা)’র সিলেট বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর অ্যাডভোকেট শাহ্ শাহেদা আক্তার বলেছেন, মৌলভীবাজার জেলা সদরের বেশ কিছু অংশে গাছ কাটা হয়েছে। যে গাছ কাটা হয়েছে সে গাছ আর জোড়া লাগানো সম্ভব নয়। যেটা আমরা করতে পারি না, সে ক্ষতি টা যেনো আমরা না করি। যে ক্ষতি হয়ে গেছে এই ক্ষতিটা পুষিয়ে নেওয়ার জন্য যে যে জায়গা খালি আছে ঐ খালি জায়গাগুলোতে দেশিয় প্রজাতির গাছ লাগানো এবং এই গাছগুলোকে যথাসময়ে পরিচর্যা করা নৈতিকভাবে দায়িত্ব।

তিনি বলেন, আমাদের দাবি থাকবে উন্নয়নমূলক পরিকল্পনাকে অন্যভাবে সাজানোর জন্য। গাছগুলোকে রেখে যেকোনো ধরণের উন্নয়ন কর্মকান্ড হাতে নেয়া হবে সকলের জন্য মঙ্গল। উন্নয়নের নামে আমরা যদি গাছগুলো কেটে দেই তাহলে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে আমাদের পৃথিবীটা দিন দিন উত্তপ্ত হচ্ছে। সেটা আমাদের নাগরিকদের জন্য মঙ্গল হবে না।

বুধবার (৪ অক্টোবর) শহরের শাহ্ মোস্তফা সড়কের বেরীর পাড় লেইকের সামনে সচতেন নাগরিক সমাজের ব্যানারে আয়োজিত মৌলভীবাজারে গাছ কাটা বন্ধ ও গাছ সংরক্ষণের দাবিতে মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এর মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি অধ্যক্ষ মো: ইকবাল এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বাপা মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কবি শিব প্রসন্ন ভট্রাচার্য্য, কবি, সংগঠক পুলক কান্তি ধর ও সঙ্গীত শিল্পী সুরঞ্জিত সুরণ।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র সভাপতি অধ্যক্ষ মো. ইকবাল বলেন, বাংলাদেশ আজ বিপর্যস্ত একমাত্র পরিবেশের জন্য। সারাদেশে বৃক্ষ নির্বিচারে কাটা হচ্ছে, বিভিন্নভাবে নদী নালা খাল বিল দখল হচ্ছে। পরিবেশের ক্ষতি হওয়ার কারণে জলবায়ুর বিশাল পরিবর্তন হয়েছে। যা আগামীতে আমাদের বাংলাদেশ বির্পযয়ের মুখে পড়বে এবং তা কিছুটা হলেও অনুধাবন করতে পারছি।

এদিকে মানবন্ধন শেষে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা)’র সিলেট বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর অ্যাডভোকেট শাহ্ শাহেদা আক্তার এর নেতৃত্বে বেলা ও বাপার প্রতিনিধি দল মৌলভীবাজার সদরের আখাইলকুড়া ইউনিয়নের নতুন ব্রীজ এলাকা থেকে শহরতলীর বালিকান্দি খেয়াঘাট পর্যন্ত মনু নদীর পাড়ে যে গাছগুলো কাটা হয়েছে ওই এলাকা পরিদর্শনে যান। এসময় প্রতিনিধি দল গাছ কাটার চিত্র সরেজমিন ঘুরে দেখেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা)’র সিলেট বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর অ্যাডভোকেট শাহ্ শাহেদা আক্তার বলেন, যেভাবে ৮ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিশাল বিশাল গাছ কাটা হয়েছে। তাতে এ চিত্র দেখে আমরা হতভাগ হয়েছি। এটি বন্ধ করতে হবে। আমরা বেলার পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্টদের লিখিতভাবে জানতে চাইব।

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

গাছ কেটে ধ্বংসের ফলে পৃথিবীটা ছোট হয়ে আসছে!

প্রকাশের সময় : ১২:৫১:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ অক্টোবর ২০২৩

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা)’র সিলেট বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর অ্যাডভোকেট শাহ্ শাহেদা আক্তার বলেছেন, মৌলভীবাজার জেলা সদরের বেশ কিছু অংশে গাছ কাটা হয়েছে। যে গাছ কাটা হয়েছে সে গাছ আর জোড়া লাগানো সম্ভব নয়। যেটা আমরা করতে পারি না, সে ক্ষতি টা যেনো আমরা না করি। যে ক্ষতি হয়ে গেছে এই ক্ষতিটা পুষিয়ে নেওয়ার জন্য যে যে জায়গা খালি আছে ঐ খালি জায়গাগুলোতে দেশিয় প্রজাতির গাছ লাগানো এবং এই গাছগুলোকে যথাসময়ে পরিচর্যা করা নৈতিকভাবে দায়িত্ব।

তিনি বলেন, আমাদের দাবি থাকবে উন্নয়নমূলক পরিকল্পনাকে অন্যভাবে সাজানোর জন্য। গাছগুলোকে রেখে যেকোনো ধরণের উন্নয়ন কর্মকান্ড হাতে নেয়া হবে সকলের জন্য মঙ্গল। উন্নয়নের নামে আমরা যদি গাছগুলো কেটে দেই তাহলে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে আমাদের পৃথিবীটা দিন দিন উত্তপ্ত হচ্ছে। সেটা আমাদের নাগরিকদের জন্য মঙ্গল হবে না।

বুধবার (৪ অক্টোবর) শহরের শাহ্ মোস্তফা সড়কের বেরীর পাড় লেইকের সামনে সচতেন নাগরিক সমাজের ব্যানারে আয়োজিত মৌলভীবাজারে গাছ কাটা বন্ধ ও গাছ সংরক্ষণের দাবিতে মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এর মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি অধ্যক্ষ মো: ইকবাল এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বাপা মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কবি শিব প্রসন্ন ভট্রাচার্য্য, কবি, সংগঠক পুলক কান্তি ধর ও সঙ্গীত শিল্পী সুরঞ্জিত সুরণ।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র সভাপতি অধ্যক্ষ মো. ইকবাল বলেন, বাংলাদেশ আজ বিপর্যস্ত একমাত্র পরিবেশের জন্য। সারাদেশে বৃক্ষ নির্বিচারে কাটা হচ্ছে, বিভিন্নভাবে নদী নালা খাল বিল দখল হচ্ছে। পরিবেশের ক্ষতি হওয়ার কারণে জলবায়ুর বিশাল পরিবর্তন হয়েছে। যা আগামীতে আমাদের বাংলাদেশ বির্পযয়ের মুখে পড়বে এবং তা কিছুটা হলেও অনুধাবন করতে পারছি।

এদিকে মানবন্ধন শেষে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা)’র সিলেট বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর অ্যাডভোকেট শাহ্ শাহেদা আক্তার এর নেতৃত্বে বেলা ও বাপার প্রতিনিধি দল মৌলভীবাজার সদরের আখাইলকুড়া ইউনিয়নের নতুন ব্রীজ এলাকা থেকে শহরতলীর বালিকান্দি খেয়াঘাট পর্যন্ত মনু নদীর পাড়ে যে গাছগুলো কাটা হয়েছে ওই এলাকা পরিদর্শনে যান। এসময় প্রতিনিধি দল গাছ কাটার চিত্র সরেজমিন ঘুরে দেখেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা)’র সিলেট বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর অ্যাডভোকেট শাহ্ শাহেদা আক্তার বলেন, যেভাবে ৮ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিশাল বিশাল গাছ কাটা হয়েছে। তাতে এ চিত্র দেখে আমরা হতভাগ হয়েছি। এটি বন্ধ করতে হবে। আমরা বেলার পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্টদের লিখিতভাবে জানতে চাইব।