ঢাকা , শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে অবৈধভাবে ফসলি জমি কাটায় ৪ টি ড্রেজার সহ গ্রেফতার ৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, প্রতিদিনের পোস্ট.কম || ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে ফসলি জমি রক্ষার্থে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অবৈধ ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) একরামুল ছিদ্দিক।

বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের কাইতলা গোয়ালী এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে কসবা উপজেলার ইশাননগরের ফরহাদ মিয়ার ২টি, কাইতলার শফিক মিয়ার ১টি, কসবা উপজেলার মেহেরীর আইয়ূব নবীর ১ টি’সহ ৪ টি অবৈধ ড্রেজার জব্দ করেন।

এ সময় অবৈধভাবে ফসলি জমি কাটার সাথে জড়িত ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ড্রেজার শ্রমিক সবাই ময়মনসিংহের দোবাওরার।

জানা যায়, উপজেলার কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ফসলী জমি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় থেকে ভূমিদস্যুরা নির্বিঘ্নে শত শত একর জমির মাটি কেটে অন্যত্রে বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। মাটি ব্যবস্থাপনা আইন লঙ্ঘন করে অনুমতি বিহীন জমির শ্রেনী পরিবর্তন করে ৪০ থেকে ৫০ ফুট গভীর করে মাটি কাটায় আশেপাশের ফসলি জমিগুলো ভেঙে পরে। এ কারণে বেশির ভাগ সাধারণ কৃষক বাধ্য হয়ে কম মূল্যে ফসলি জমি বিক্রি করে নিঃস্ব হচ্ছে।

বিগত কয়েক বছরে উপজেলায় অন্তত কয়েক হাজার একর ফসলি জমি ধ্বংস করে দিয়েছে ভূমিদস্যুরা। সাধারণ কৃষকের অভিযোগ ও কৃষি জমি রক্ষার্থে প্রশাসন মাঝে মধ্যে অভিযান পরিচালনা করে জেল জরিমানা সহ ড্রেজার জব্দ করলেও এতে কোন সুফল পাচ্ছে না এলাকাবাসী। কারণ প্রভাবশালীরা প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে পুনরায় অবৈধভাবে ফসলি জমি কাটা শুরু করেন।

ইতিমধ্যেই নবীনগরের বেশ কয়েকজন রাঘববোয়ালদের অবৈধ ড্রেজার জব্দ করেছেন বর্তমান উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) একরামুল ছিদ্দিক।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) একরামুল ছিদ্দিক জানান, সাধারণ কৃষকের ফসলি জমি রক্ষার্থে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে, এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box
জনপ্রিয়

নবীনগরে অবৈধভাবে ফসলি জমি কাটায় ৪ টি ড্রেজার সহ গ্রেফতার ৫

প্রকাশের সময় : ১১:১২:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, প্রতিদিনের পোস্ট.কম || ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে ফসলি জমি রক্ষার্থে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অবৈধ ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) একরামুল ছিদ্দিক।

বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের কাইতলা গোয়ালী এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে কসবা উপজেলার ইশাননগরের ফরহাদ মিয়ার ২টি, কাইতলার শফিক মিয়ার ১টি, কসবা উপজেলার মেহেরীর আইয়ূব নবীর ১ টি’সহ ৪ টি অবৈধ ড্রেজার জব্দ করেন।

এ সময় অবৈধভাবে ফসলি জমি কাটার সাথে জড়িত ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ড্রেজার শ্রমিক সবাই ময়মনসিংহের দোবাওরার।

জানা যায়, উপজেলার কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ফসলী জমি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় থেকে ভূমিদস্যুরা নির্বিঘ্নে শত শত একর জমির মাটি কেটে অন্যত্রে বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। মাটি ব্যবস্থাপনা আইন লঙ্ঘন করে অনুমতি বিহীন জমির শ্রেনী পরিবর্তন করে ৪০ থেকে ৫০ ফুট গভীর করে মাটি কাটায় আশেপাশের ফসলি জমিগুলো ভেঙে পরে। এ কারণে বেশির ভাগ সাধারণ কৃষক বাধ্য হয়ে কম মূল্যে ফসলি জমি বিক্রি করে নিঃস্ব হচ্ছে।

বিগত কয়েক বছরে উপজেলায় অন্তত কয়েক হাজার একর ফসলি জমি ধ্বংস করে দিয়েছে ভূমিদস্যুরা। সাধারণ কৃষকের অভিযোগ ও কৃষি জমি রক্ষার্থে প্রশাসন মাঝে মধ্যে অভিযান পরিচালনা করে জেল জরিমানা সহ ড্রেজার জব্দ করলেও এতে কোন সুফল পাচ্ছে না এলাকাবাসী। কারণ প্রভাবশালীরা প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে পুনরায় অবৈধভাবে ফসলি জমি কাটা শুরু করেন।

ইতিমধ্যেই নবীনগরের বেশ কয়েকজন রাঘববোয়ালদের অবৈধ ড্রেজার জব্দ করেছেন বর্তমান উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) একরামুল ছিদ্দিক।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) একরামুল ছিদ্দিক জানান, সাধারণ কৃষকের ফসলি জমি রক্ষার্থে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে, এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box