ঢাকা , সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার উপজেলা বাইস চেয়ারম্যান, আহত ৩

মোঃ আলমগীর হোসেন, নবীনগর: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হয়েছেন উপজেলা বাইস চেয়ারম্যান ও লাউর ফতেহপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন সাদেক। এ ঘটনায় তিনি সহ আরো ৩ জন আহত হয়েছেন।

আজ রবিবার (৭ জানুয়ারি) উপজেলার লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের নিজ গ্রাম বাসারুক ভোট কেন্দ্রে ভোট প্রদান শেষে সমর্থকদের নিয়ে বাড়িতে ফেরার সময় এ হামলার শিকার হয়।

জানা গেছে, সপরিবার নিয়ে কেন্দ্রে যেয়ে ভোট প্রদানের পর সেলিম নামের একজন ভিডিও ধারণ করছিলেন ভিডিও’র ঘটনাকে কেন্দ্র করে শওকতের সাথে বাকবিতান্ডা হয়। পরে পরিবার ও সমর্থকদের নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বাসারের বাড়ির সামনে পৌছানো মাত্রই শওকতের নেতৃত্বে অতর্কিত হামলা চালায় জাকির ও তার সমর্থকদের উপর।

হামলার ঘটনায় আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন এমতাবস্থায় জাকির হোসেন সাদেকের অবস্থা সংকটপন্ন হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

হামলার শিকার জাকির হোসেন সাদেক প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, ভোট দিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে বাসারের বাড়ির সামনে আসা মাত্রই শওকতের লোকজন পরিকল্পিতভাবে দা, লাঠি সহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এলোপাতাড়ি আক্রমণ শুরু করে। এসময় আমাকে বাচাতে ছুটে আসলে আমার সমর্থকদের উপর আক্রমণ করে।

খবর পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনির, বাইস চেয়ারম্যান শিউলি রহমান, জেলা পরিষদ সদস্য নাসির উদ্দিন দেখতে এসে বলেন, বাইস চেয়ারম্যান সাদেকের উপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এমন ঘটনায় নিরাপত্তা নিয়ে তারা সংকীর্ণতা প্রকাশ করেন।

Facebook Comments Box
ট্যাগস :
জনপ্রিয়

নবীনগরে দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার উপজেলা বাইস চেয়ারম্যান, আহত ৩

প্রকাশের সময় : ০৮:৫২:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২৪

মোঃ আলমগীর হোসেন, নবীনগর: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হয়েছেন উপজেলা বাইস চেয়ারম্যান ও লাউর ফতেহপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন সাদেক। এ ঘটনায় তিনি সহ আরো ৩ জন আহত হয়েছেন।

আজ রবিবার (৭ জানুয়ারি) উপজেলার লাউর ফতেহপুর ইউনিয়নের নিজ গ্রাম বাসারুক ভোট কেন্দ্রে ভোট প্রদান শেষে সমর্থকদের নিয়ে বাড়িতে ফেরার সময় এ হামলার শিকার হয়।

জানা গেছে, সপরিবার নিয়ে কেন্দ্রে যেয়ে ভোট প্রদানের পর সেলিম নামের একজন ভিডিও ধারণ করছিলেন ভিডিও’র ঘটনাকে কেন্দ্র করে শওকতের সাথে বাকবিতান্ডা হয়। পরে পরিবার ও সমর্থকদের নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বাসারের বাড়ির সামনে পৌছানো মাত্রই শওকতের নেতৃত্বে অতর্কিত হামলা চালায় জাকির ও তার সমর্থকদের উপর।

হামলার ঘটনায় আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন এমতাবস্থায় জাকির হোসেন সাদেকের অবস্থা সংকটপন্ন হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

হামলার শিকার জাকির হোসেন সাদেক প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, ভোট দিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে বাসারের বাড়ির সামনে আসা মাত্রই শওকতের লোকজন পরিকল্পিতভাবে দা, লাঠি সহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এলোপাতাড়ি আক্রমণ শুরু করে। এসময় আমাকে বাচাতে ছুটে আসলে আমার সমর্থকদের উপর আক্রমণ করে।

খবর পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনির, বাইস চেয়ারম্যান শিউলি রহমান, জেলা পরিষদ সদস্য নাসির উদ্দিন দেখতে এসে বলেন, বাইস চেয়ারম্যান সাদেকের উপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এমন ঘটনায় নিরাপত্তা নিয়ে তারা সংকীর্ণতা প্রকাশ করেন।

Facebook Comments Box