ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
‘বেরোবিতে পুলিশের গু’ লিতে নি, হত ১, আহত শতাধিক’ মৌলভীবাজারের বিশিষ্ট জনদের আন্তর্জাতিক গনতন্ত্র ও মানবাধিকার সংগঠনে মনোনীত নিজ গ্রাম থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন মেয়র প্রার্থী আওয়ামিলীগ নেতা সফিকুল ইসলাম শ্রীমঙ্গলে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে যুবককে হত্যা নবীনগর থানা প্রেসক্লাবের ত্রি-বার্ষিক কমিটি গঠন সভাপতি জসিম সম্পাদক রুবেল আইনমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে গিয়ে মেয়র ও চেয়ারম্যান গ্রুপের সংঘর্ষ নবীনগরে ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলমের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন মাথিউড়া চা শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি পরিশোধের দাবি গাজীপুরে কাভার ভ্যানের ধাক্কায় ধনেপাতার চাষীর মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের রথযাত্রা উৎসব পালিত

নবীনগরে যাত্রীদের গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত সিএনজির ভাড়া, দেখার কেউ নেই

মোঃ আলমগীর খন্দকার, প্রতিদিনের পোস্ট
  • প্রকাশের সময় : ০৮:০৬:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ১৫৯ বার পড়া হয়েছে

মোঃ আলমগীর হোসেন, নবীনগর প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে নবীনগর উপজেলায় যাতায়াতে কাইতলা, বিটঘর, শিবপুর, নারুই সড়কের সিএনজি ভাড়া বেশি গুনতে হচ্ছে যাত্রীসাধারণের। আগে সিএনজি যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে তিললাখপীর রোডে বিটঘর যাওয়া আসার সময় লাগত দুই ঘন্টা, তখন সিএনজি ভাড়া ছিল জনপ্রতি ১২০টাকা থেকে ১৩০ টাকা পর্যন্ত। অনেক সময় ঝড়বৃষ্টি অথবা যাত্রীদের সময়-সুযোগ বুঝে বেশি ভাড়া আদায় করে নেওয়ার অভিযোগও উঠে।যেসকল যাত্রীগণ রাধিকা হয়ে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর, বিটঘর,পর্যন্ত সিএনজি যোগে যাতায়াত করে বর্তমানে ১৩০টাকা দিতে হচ্ছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে রাধিকার রাস্তা ভাল হওয়ায় সময় লাগে আগের অর্ধেকর চেয়েও কম সময়।

বিটঘর ইউনিয়নের গুড়িগ্রামের মোশারফ হোসেন বলেন, বিটঘর পুকুরপাড় সিএনজি স্টেশন থেকে ৪৫ মিনিট বা ৫০ মিনিট সময় লাগছে, এই নতুন রাধিকা সড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পর্যন্ত আসতে কিন্তু ভাড়া দিতে হয়েছে সেই চারগাছ-তিললাখপীর সড়ক হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই ঘন্টা সময় লাগার ১৩০ টাকা ভাড়া, ৪৫/৫০ মিনিটে আসা ভাড়া কিভাবে ১৩০ টাকা নিল, তা আমার বোধগম্য নয়, আমি মেনে নিতে পারছি না, তবুও ১৩০টাকা ভাড়া দিলাম। আপনারা সাংবাদিকতা করেন, জনসাধারণের কষ্টের কথা তুলে ধরা আপনাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে, এই নিয়ে কিছু একটা করেন!

তেমনি আরেকজন মহিলা যাত্রী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, তিনি বলেন-“আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে তিললাখপীর রোডে বিটঘর দুই ঘন্টার যাতায়াতের ভাড়া যদি ১৩০টাকা আদায় করে, তাহলে বর্তমানে রাধিকারোডে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর হয়ে বিটঘর পর্যন্ত সময় অনুযায়ী ৬০টাকা ভাড়াই অনেক বেশি। নতুন রোডে সঠিক তদারকির অভাব। তাই নতুন এই রোডে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর এবং বিটঘরের সিএনজি ভাড়ার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন। যেখানে সিএনজি ডাইভাররা মনগড়া ইচ্ছে মতো ভাড়া নিয়ে যাচ্ছে। আবার কখনো কখনো অতিরিক্ত টাকাও দিতে হচ্ছে। এই লাগামহীন ভাড়া আদায়ের, যেন দেখার কেউ নাই। এখন রাস্তা ভালো করা হয়ছে, আগের সময় নতুন এই রাধিকা সড়কে এখন লাগে না, রাধিকা হয়ে নতুন রোডে বিটঘর যেতে বেশি হলে সময় লাগে ৪৫/৫০ মিনিট। এখানে ভাড়া অনেক বেশি নেওয়া হচ্ছে”। ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে ভাড়ার টাকা নতুন রোডে সঠিক তদারকির মাধ্যমে নির্ধারণ করে দেওয়ার জন্য জোরালো দাবী জানাচ্ছি কর্তৃপক্ষের নিকট”।

সরেজমিনে গিয়ে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, এই নতুন সড়কে অতিরিক্ত ভাড়া দিতে অনিচ্ছুক যাত্রীসাধারন। ভাড়া নিয়ে ড্রাইভার আর যাত্রীদের মধ্যে তর্কবিতর্ক যেন নিত্যদিনের সঙ্গী। ড্রাইভার আর যাত্রীদের মধ্যে তর্ক বিতর্কই থেমে যায় না, এই ভাড়া অতিরিক্ত দিতে হচ্ছে মনে করে হাতাহাতি- মারামারির ঘটনাও অনেক সময় হয়ে থাকে। তাই অতিবিলম্ব এই রাধিকা সড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে যাতায়াতের জন্য ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর,বিটঘর ও কাইতলা পর্যন্ত প্রতি স্টেশনের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করিয়া দিতে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করিতে কর্তৃপক্ষের নিকট জোরালো দাবী জানাচ্ছেন এলাকাবাসী।

বিটঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেদী জাফর দস্তগীর এবিষয়ে বলেন, এই রোড পরিচালনায় দায়িত্বরত সকলকে নিয়ে শিবপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ কামাল হোসেন ভাইকে সাথে নিয়ে বসব, সকলের পরামর্শক্রমে অচিরেই নতুন করে ভাড়া নির্ধারণের ব্যবস্হা গ্রহন করবো, এই অতিরিক্ত ভাড়া কিছুতেই গ্রহনযোগ্য নয়, আমার জানা মতে এখানের মত এত বেশি ভাড়া বাংলাদেশে কোথাও নাই, সকলের মতামত নিয়ে আমি এর ব্যবস্থা নিব।

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

নবীনগরে যাত্রীদের গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত সিএনজির ভাড়া, দেখার কেউ নেই

প্রকাশের সময় : ০৮:০৬:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

মোঃ আলমগীর হোসেন, নবীনগর প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে নবীনগর উপজেলায় যাতায়াতে কাইতলা, বিটঘর, শিবপুর, নারুই সড়কের সিএনজি ভাড়া বেশি গুনতে হচ্ছে যাত্রীসাধারণের। আগে সিএনজি যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে তিললাখপীর রোডে বিটঘর যাওয়া আসার সময় লাগত দুই ঘন্টা, তখন সিএনজি ভাড়া ছিল জনপ্রতি ১২০টাকা থেকে ১৩০ টাকা পর্যন্ত। অনেক সময় ঝড়বৃষ্টি অথবা যাত্রীদের সময়-সুযোগ বুঝে বেশি ভাড়া আদায় করে নেওয়ার অভিযোগও উঠে।যেসকল যাত্রীগণ রাধিকা হয়ে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর, বিটঘর,পর্যন্ত সিএনজি যোগে যাতায়াত করে বর্তমানে ১৩০টাকা দিতে হচ্ছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে রাধিকার রাস্তা ভাল হওয়ায় সময় লাগে আগের অর্ধেকর চেয়েও কম সময়।

বিটঘর ইউনিয়নের গুড়িগ্রামের মোশারফ হোসেন বলেন, বিটঘর পুকুরপাড় সিএনজি স্টেশন থেকে ৪৫ মিনিট বা ৫০ মিনিট সময় লাগছে, এই নতুন রাধিকা সড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পর্যন্ত আসতে কিন্তু ভাড়া দিতে হয়েছে সেই চারগাছ-তিললাখপীর সড়ক হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই ঘন্টা সময় লাগার ১৩০ টাকা ভাড়া, ৪৫/৫০ মিনিটে আসা ভাড়া কিভাবে ১৩০ টাকা নিল, তা আমার বোধগম্য নয়, আমি মেনে নিতে পারছি না, তবুও ১৩০টাকা ভাড়া দিলাম। আপনারা সাংবাদিকতা করেন, জনসাধারণের কষ্টের কথা তুলে ধরা আপনাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে, এই নিয়ে কিছু একটা করেন!

তেমনি আরেকজন মহিলা যাত্রী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, তিনি বলেন-“আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে তিললাখপীর রোডে বিটঘর দুই ঘন্টার যাতায়াতের ভাড়া যদি ১৩০টাকা আদায় করে, তাহলে বর্তমানে রাধিকারোডে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর হয়ে বিটঘর পর্যন্ত সময় অনুযায়ী ৬০টাকা ভাড়াই অনেক বেশি। নতুন রোডে সঠিক তদারকির অভাব। তাই নতুন এই রোডে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর এবং বিটঘরের সিএনজি ভাড়ার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন। যেখানে সিএনজি ডাইভাররা মনগড়া ইচ্ছে মতো ভাড়া নিয়ে যাচ্ছে। আবার কখনো কখনো অতিরিক্ত টাকাও দিতে হচ্ছে। এই লাগামহীন ভাড়া আদায়ের, যেন দেখার কেউ নাই। এখন রাস্তা ভালো করা হয়ছে, আগের সময় নতুন এই রাধিকা সড়কে এখন লাগে না, রাধিকা হয়ে নতুন রোডে বিটঘর যেতে বেশি হলে সময় লাগে ৪৫/৫০ মিনিট। এখানে ভাড়া অনেক বেশি নেওয়া হচ্ছে”। ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে ভাড়ার টাকা নতুন রোডে সঠিক তদারকির মাধ্যমে নির্ধারণ করে দেওয়ার জন্য জোরালো দাবী জানাচ্ছি কর্তৃপক্ষের নিকট”।

সরেজমিনে গিয়ে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, এই নতুন সড়কে অতিরিক্ত ভাড়া দিতে অনিচ্ছুক যাত্রীসাধারন। ভাড়া নিয়ে ড্রাইভার আর যাত্রীদের মধ্যে তর্কবিতর্ক যেন নিত্যদিনের সঙ্গী। ড্রাইভার আর যাত্রীদের মধ্যে তর্ক বিতর্কই থেমে যায় না, এই ভাড়া অতিরিক্ত দিতে হচ্ছে মনে করে হাতাহাতি- মারামারির ঘটনাও অনেক সময় হয়ে থাকে। তাই অতিবিলম্ব এই রাধিকা সড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হতে যাতায়াতের জন্য ব্রাহ্মণহাতা, শিবপুর,বিটঘর ও কাইতলা পর্যন্ত প্রতি স্টেশনের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করিয়া দিতে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করিতে কর্তৃপক্ষের নিকট জোরালো দাবী জানাচ্ছেন এলাকাবাসী।

বিটঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেদী জাফর দস্তগীর এবিষয়ে বলেন, এই রোড পরিচালনায় দায়িত্বরত সকলকে নিয়ে শিবপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ কামাল হোসেন ভাইকে সাথে নিয়ে বসব, সকলের পরামর্শক্রমে অচিরেই নতুন করে ভাড়া নির্ধারণের ব্যবস্হা গ্রহন করবো, এই অতিরিক্ত ভাড়া কিছুতেই গ্রহনযোগ্য নয়, আমার জানা মতে এখানের মত এত বেশি ভাড়া বাংলাদেশে কোথাও নাই, সকলের মতামত নিয়ে আমি এর ব্যবস্থা নিব।