ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নবীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ফারুক আহমেদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

মো. আলমগীর খন্দকার
  • প্রকাশের সময় : ১২:৫৬:৫৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪
  • / ৩৬ বার পড়া হয়েছে

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ  ৪র্থ ধাপে নবীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির উপদেষ্টা থেকে সদ্য বহিস্কৃত নেতা ফারুক আহমেদ (আনারস) প্রতীকে ৫৮ হাজার ৩৪৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস(ঘোড়া) পেয়েছেন ২৫ হাজার ৬৮১ ভোট।

বুধবার (৫ জুন) রাতে ভোট গণনা শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা তানভীর ফরহাদ শামীম ফলাফল ঘোষণা করেছেন।

বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ১৫৬টি কেন্দ্রে এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়াও ওই দিন রাতে ভোট গণনা শেষে বেসরকারি ঘোষিত ফলাফলে দেখা যায়, মোঃ মেহেদী হাসান (চশমা) প্রতীকে ৩২ হাজার ৪০৪ ভোট পেয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. খাইরুল আমিন (মাইক) ২৩ হাজার ৫৪৪ ভোট পেয়েছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহমুদা আক্তার শিউলী (ফুটবল) প্রতীকে ৫৮ হাজার ৫৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবিনা ইয়াসমিন পুতুল (কলস) ৩১ হাজার ৩৩৯ ভোট পেয়েছেন।

এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন।

এ উপজেলায় ভোট পড়েছে ১ লাখ ১৮ হাজার ৪২২টি।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী নবীনগর উপজেলায় ২১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় মোট ভোটার রয়েছে ৪ লাখ ৩৮ হাজার ১৬৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ২৮ হাজার ৬৯৮ জন এবং নারী ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৯ হাজার ৪৬৯ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার সংখ্যা ২ জন। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৫৬টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভোট পড়েছে ২৮ দশমিক ৬০ শতাংশ।

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

নবীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ফারুক আহমেদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

প্রকাশের সময় : ১২:৫৬:৫৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ  ৪র্থ ধাপে নবীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির উপদেষ্টা থেকে সদ্য বহিস্কৃত নেতা ফারুক আহমেদ (আনারস) প্রতীকে ৫৮ হাজার ৩৪৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস(ঘোড়া) পেয়েছেন ২৫ হাজার ৬৮১ ভোট।

বুধবার (৫ জুন) রাতে ভোট গণনা শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা তানভীর ফরহাদ শামীম ফলাফল ঘোষণা করেছেন।

বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ১৫৬টি কেন্দ্রে এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়াও ওই দিন রাতে ভোট গণনা শেষে বেসরকারি ঘোষিত ফলাফলে দেখা যায়, মোঃ মেহেদী হাসান (চশমা) প্রতীকে ৩২ হাজার ৪০৪ ভোট পেয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. খাইরুল আমিন (মাইক) ২৩ হাজার ৫৪৪ ভোট পেয়েছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহমুদা আক্তার শিউলী (ফুটবল) প্রতীকে ৫৮ হাজার ৫৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবিনা ইয়াসমিন পুতুল (কলস) ৩১ হাজার ৩৩৯ ভোট পেয়েছেন।

এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন।

এ উপজেলায় ভোট পড়েছে ১ লাখ ১৮ হাজার ৪২২টি।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী নবীনগর উপজেলায় ২১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় মোট ভোটার রয়েছে ৪ লাখ ৩৮ হাজার ১৬৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ২৮ হাজার ৬৯৮ জন এবং নারী ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৯ হাজার ৪৬৯ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার সংখ্যা ২ জন। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৫৬টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভোট পড়েছে ২৮ দশমিক ৬০ শতাংশ।