ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
‘বেরোবিতে পুলিশের গু’ লিতে নি, হত ১, আহত শতাধিক’ মৌলভীবাজারের বিশিষ্ট জনদের আন্তর্জাতিক গনতন্ত্র ও মানবাধিকার সংগঠনে মনোনীত নিজ গ্রাম থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন মেয়র প্রার্থী আওয়ামিলীগ নেতা সফিকুল ইসলাম শ্রীমঙ্গলে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে যুবককে হত্যা নবীনগর থানা প্রেসক্লাবের ত্রি-বার্ষিক কমিটি গঠন সভাপতি জসিম সম্পাদক রুবেল আইনমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে গিয়ে মেয়র ও চেয়ারম্যান গ্রুপের সংঘর্ষ নবীনগরে ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলমের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন মাথিউড়া চা শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি পরিশোধের দাবি গাজীপুরে কাভার ভ্যানের ধাক্কায় ধনেপাতার চাষীর মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের রথযাত্রা উৎসব পালিত

‘পরকীয়া প্রেম, ছেলের শ্বশুরের সাথে পালিয়েছে মেয়ের শাশুড়ি’

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : ০৯:০৬:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই ২০২৪
  • / ১৩৭ বার পড়া হয়েছে

গাজীপুরের কালীগঞ্জে পরকীয়া প্রেমের টানে ১৯ বছরের সংসার রেখে ছেলের শ্বশুরের সাথে পালিয়েছে এক গৃহবধূ। ঘটনাটি ঘটে কালীগঞ্জ উপজেলাধীন জামালপুর গ্রামে আব্দুল্লাহর ভাড়া বাসায়।

অনুসন্ধানে জানা গেছে,পরকীয়া প্রেমের টানে স্বামীর ঘর ছেড়ে ছেলের শ্বশুর জালাল উদ্দিনের ( ৪৫) সাথে তারাবানু (৩৫) নামের এই গৃহবধূ একাধিকবার পালিয়েছে। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়। অন্যদিকে ১৯ বছরের সংসার রেখে ছেলের শ্বশুরের সাথে স্ত্রী পালানোর ঘটনা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেনা স্বামী আনোয়ার হোসেন ( ৪৫)।

এ বিষয়ে আনোয়ার প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, ছেলের শ্বশুরের সাথে তারাবানুর  অবৈধ সম্পর্কের কথা জানাজানি হলে স্ত্রী ও জালাল ক্ষমা চাইলে তাদেরকে ক্ষমা করে দেয়া হয়। পুনরায় এ ধরনের ঘটনা ঘটবে না বলেও ওয়াদা করে তারা। কিন্তু এর পরও একাধিকবার ঘর ছেড়ে পালিয়েছে এই দু’জন । সর্বশেষ কুরবানীর ঈদের দু’দিন পরে বুধবার (২০শে জুন ) তারা আবার পালিয়ে যায়। ভাইরাল অন্তরঙ্গ মুহর্ত দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

আনোয়ার প্রতিদিনের পোস্টকে আরও জানান, ১৯ বছরের সংসার জীবনে আমার তিন সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে জালালের মেয়ের জামাই। মেজো ছেলে বাড়িতেই থাকে আর ছোট ছেলে আমাদের সাথে থাকতো। ঈদের পর ৫ বছর বয়সী ছোট ছেলেকে নিয়ে জালাল ও তারাবানু পালিয়েছে। ঠিক কোথায় তারা পলিয়ে গিয়েছে তারো কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে জানতে পেরেছিলাম গাজীপুরের কোথাও তারা লুকিয়ে আছে। এ ঘটনায় ঘর থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়েছে তারা। এ বিষয়ে ছোট ছেলে ও আমাকে হুমকি দিত। তাই আমাদের নিরাপত্তা জন্য আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রতিবেশী ভাড়াটিয়ারা বলেন, আনোয়ার যখন আমাদের সাথে ভাড়া থাকতো তখন তার স্ত্রীর সাথে জালাল উদ্দিনের অবৈধ সম্পর্কের কথা আমরা জেনেছি। এ ঘটনায় একাধিকবার বাড়ি থেকে পালিয়েছে তারা। দীর্ঘদিন সংসারের কথা চিন্তা করে বারবার আনোয়ার ভাই তাকে ক্ষমা করে দেয়। এই কুরবানীর ঈদের আগে জালালের সাথেই ছিল। ঈদের কয়েকদিন পর্যন্ত আনোয়ারের সাথে থেকে দু’দিন পরই জালালের সাথে আবার পালিয়েছে। তাদের এই অবৈধ সম্পর্কের বিষয় বাড়ির মালিক কর্তৃপক্ষকে জানালে তাদেরকে বাড়ি ছেড়ে দিতে বলা হয়। ভাইরাল অন্তরঙ্গ মুহর্ত দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

জামালপুর এলাকার এক বয়স্ক মুরুব্বী বলেন, আনোয়ারের সাথে কয়েক দিন ধরে আমার পরিচয় এরই মধ্যে জানতে পারলাম তার স্ত্রী তারাবানু ছেলের শ্বশুরের সাথে একাধিকবার পালিয়েছে। এই কুরবানীর ঈদের পর পালিয়েছে বলেও আমরা শুনতে পেয়েছি। আরো জানা গেছে, ভাড়াটিয়া আনোয়ার এর বাড়ি কালীগঞ্জ উপজেলার মুক্তারপুর সাওরাইট এলাকার একুতা দিগুয়া নাম গ্রামে। সে পেশায় একজন ঢালাই শ্রমিক। দীর্ঘ ১৯ বছরের সংসারে তারাবানুর ঘরে তিনটি ছেলে সন্তান রয়েছে। পারিবারিক ঋণের কারণে কর্মের খোঁজে জামালপুর এলাকায় বাসা ভাড়া থাকতেন তারা। গত দুই বছর আগে জালাল উদ্দিনের মেয়ের সাথে আনোয়ারের ছেলের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই তারাবানু ও জালালের অবৈধ সম্পর্কের গুঞ্জন ওঠে। পরে মোবাইল ফোনে দেখতে পায় তাদের একাধিক ঘনিষ্ঠ ছবি। যা দেখে আনোয়ার বুঝতে পারে তাদের মধ্যে অবৈধ সম্পর্ক আছে। বিষয়টি যখন পরিবারের লোকজনের মধ্যে জানাজানি হয়। তারাবানু ও জালাল বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরে আবার ফিরে এসে আনোয়ার এর কাছে ক্ষমা চায়। ভাইরাল অন্তরঙ্গ মুহর্ত দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

এ বিষয়ে তারাবানু ও জালাল উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।  জালাল উদ্দিন কালীগঞ্জ উপজেলাদীন জামালপুর এলাকার কাপাইশ গ্রামের বাসিন্দা। তার পরিবারে স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। বড় মেয়ে আনোয়ারের ছেলের সাথে সংসার করছে। তার স্ত্রী বর্তমানে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপে চাকরি করে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জামালপুর ১ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য কিশোর আকন্দ বলেন, ঘটনাগুলো আমি শুনেছি, জালালকে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হয়েছে। ঈদের পরে আবার এ ঘটনা ঘটেছে তাও শুনেছি। কিন্তু জালাল বর্তমানে কোথায় আছে জানা নেই। আনোয়ার এর সাথে কথা বলে বিষয়টি সামাজিকভাবে মীমাংসা করা হবে। ভিডিও নিউজ দেখতে লিংকে ক্লক করুন https://fb.watch/t6x2E1YXMH/

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

‘পরকীয়া প্রেম, ছেলের শ্বশুরের সাথে পালিয়েছে মেয়ের শাশুড়ি’

প্রকাশের সময় : ০৯:০৬:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই ২০২৪

গাজীপুরের কালীগঞ্জে পরকীয়া প্রেমের টানে ১৯ বছরের সংসার রেখে ছেলের শ্বশুরের সাথে পালিয়েছে এক গৃহবধূ। ঘটনাটি ঘটে কালীগঞ্জ উপজেলাধীন জামালপুর গ্রামে আব্দুল্লাহর ভাড়া বাসায়।

অনুসন্ধানে জানা গেছে,পরকীয়া প্রেমের টানে স্বামীর ঘর ছেড়ে ছেলের শ্বশুর জালাল উদ্দিনের ( ৪৫) সাথে তারাবানু (৩৫) নামের এই গৃহবধূ একাধিকবার পালিয়েছে। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়। অন্যদিকে ১৯ বছরের সংসার রেখে ছেলের শ্বশুরের সাথে স্ত্রী পালানোর ঘটনা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেনা স্বামী আনোয়ার হোসেন ( ৪৫)।

এ বিষয়ে আনোয়ার প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, ছেলের শ্বশুরের সাথে তারাবানুর  অবৈধ সম্পর্কের কথা জানাজানি হলে স্ত্রী ও জালাল ক্ষমা চাইলে তাদেরকে ক্ষমা করে দেয়া হয়। পুনরায় এ ধরনের ঘটনা ঘটবে না বলেও ওয়াদা করে তারা। কিন্তু এর পরও একাধিকবার ঘর ছেড়ে পালিয়েছে এই দু’জন । সর্বশেষ কুরবানীর ঈদের দু’দিন পরে বুধবার (২০শে জুন ) তারা আবার পালিয়ে যায়। ভাইরাল অন্তরঙ্গ মুহর্ত দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

আনোয়ার প্রতিদিনের পোস্টকে আরও জানান, ১৯ বছরের সংসার জীবনে আমার তিন সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে জালালের মেয়ের জামাই। মেজো ছেলে বাড়িতেই থাকে আর ছোট ছেলে আমাদের সাথে থাকতো। ঈদের পর ৫ বছর বয়সী ছোট ছেলেকে নিয়ে জালাল ও তারাবানু পালিয়েছে। ঠিক কোথায় তারা পলিয়ে গিয়েছে তারো কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে জানতে পেরেছিলাম গাজীপুরের কোথাও তারা লুকিয়ে আছে। এ ঘটনায় ঘর থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়েছে তারা। এ বিষয়ে ছোট ছেলে ও আমাকে হুমকি দিত। তাই আমাদের নিরাপত্তা জন্য আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রতিবেশী ভাড়াটিয়ারা বলেন, আনোয়ার যখন আমাদের সাথে ভাড়া থাকতো তখন তার স্ত্রীর সাথে জালাল উদ্দিনের অবৈধ সম্পর্কের কথা আমরা জেনেছি। এ ঘটনায় একাধিকবার বাড়ি থেকে পালিয়েছে তারা। দীর্ঘদিন সংসারের কথা চিন্তা করে বারবার আনোয়ার ভাই তাকে ক্ষমা করে দেয়। এই কুরবানীর ঈদের আগে জালালের সাথেই ছিল। ঈদের কয়েকদিন পর্যন্ত আনোয়ারের সাথে থেকে দু’দিন পরই জালালের সাথে আবার পালিয়েছে। তাদের এই অবৈধ সম্পর্কের বিষয় বাড়ির মালিক কর্তৃপক্ষকে জানালে তাদেরকে বাড়ি ছেড়ে দিতে বলা হয়। ভাইরাল অন্তরঙ্গ মুহর্ত দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

জামালপুর এলাকার এক বয়স্ক মুরুব্বী বলেন, আনোয়ারের সাথে কয়েক দিন ধরে আমার পরিচয় এরই মধ্যে জানতে পারলাম তার স্ত্রী তারাবানু ছেলের শ্বশুরের সাথে একাধিকবার পালিয়েছে। এই কুরবানীর ঈদের পর পালিয়েছে বলেও আমরা শুনতে পেয়েছি। আরো জানা গেছে, ভাড়াটিয়া আনোয়ার এর বাড়ি কালীগঞ্জ উপজেলার মুক্তারপুর সাওরাইট এলাকার একুতা দিগুয়া নাম গ্রামে। সে পেশায় একজন ঢালাই শ্রমিক। দীর্ঘ ১৯ বছরের সংসারে তারাবানুর ঘরে তিনটি ছেলে সন্তান রয়েছে। পারিবারিক ঋণের কারণে কর্মের খোঁজে জামালপুর এলাকায় বাসা ভাড়া থাকতেন তারা। গত দুই বছর আগে জালাল উদ্দিনের মেয়ের সাথে আনোয়ারের ছেলের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই তারাবানু ও জালালের অবৈধ সম্পর্কের গুঞ্জন ওঠে। পরে মোবাইল ফোনে দেখতে পায় তাদের একাধিক ঘনিষ্ঠ ছবি। যা দেখে আনোয়ার বুঝতে পারে তাদের মধ্যে অবৈধ সম্পর্ক আছে। বিষয়টি যখন পরিবারের লোকজনের মধ্যে জানাজানি হয়। তারাবানু ও জালাল বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরে আবার ফিরে এসে আনোয়ার এর কাছে ক্ষমা চায়। ভাইরাল অন্তরঙ্গ মুহর্ত দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

এ বিষয়ে তারাবানু ও জালাল উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।  জালাল উদ্দিন কালীগঞ্জ উপজেলাদীন জামালপুর এলাকার কাপাইশ গ্রামের বাসিন্দা। তার পরিবারে স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। বড় মেয়ে আনোয়ারের ছেলের সাথে সংসার করছে। তার স্ত্রী বর্তমানে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপে চাকরি করে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জামালপুর ১ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য কিশোর আকন্দ বলেন, ঘটনাগুলো আমি শুনেছি, জালালকে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হয়েছে। ঈদের পরে আবার এ ঘটনা ঘটেছে তাও শুনেছি। কিন্তু জালাল বর্তমানে কোথায় আছে জানা নেই। আনোয়ার এর সাথে কথা বলে বিষয়টি সামাজিকভাবে মীমাংসা করা হবে। ভিডিও নিউজ দেখতে লিংকে ক্লক করুন https://fb.watch/t6x2E1YXMH/