ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগ

এহসানুল হক রিপন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : ০৪:২৫:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০২৩
  • / ১৬৬ বার পড়া হয়েছে

এহসানুল হক রিপন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ ভুইঁয়ার বিরুদ্ধে আশ্রয়ন প্রকল্পের জায়গা ভরাট নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগ উঠেছে। অষ্টগ্রামের ইউপি সদস্য কামাল হোসেন প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, সরকারি জায়গাটি অনেকে ভোগ দখল করছিলো, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং এসিল্যান্ড সরকারি জায়গাটি আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য নির্ধারিত করেন এলাকার মানুষের সাথে সমঝোতার মাধ্যমে এখানে সুহিলপুরের চেয়ারম্যানের কোন হাত নেই, তালশহর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, সরকারি জায়গাটি তহশিলদারের কাছ থেকে লিজ নিয়ে অনেকে ভোগদখল করে আসছিল কিন্তুু ১৮ বছর যাবৎ তারা কোন খাজনা দেয়নি,সদর উপজেলা নির্বাহীকর্মকর্তা ও এসিল্যান্ড আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য সরকারিভাবে এ জায়গাটি সনাক্ত করেছে এবং এক জায়গার সরকারি মাটি কেটে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মানের জন্য অন্য আরেকটি সরকারি জায়গা ভরাট করা হচ্ছে। সুহিলপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভুঁইয়ার সাথে ভুল বুঝাবুঝি হইছিলো সেটা সমাধান হয়ে গেছে। সুহিলপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ ভুইঁয়া প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে আমি এবং আমার পরিষদের সদস্যগনকে সাথে নিয়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মানের জন্য এক জায়গার সরকারি মাটি কেটে অন্য একটি সরকারি জায়গা ভরাট করতেছি এখানে আমার কোন স্বার্থ নেই, আশ্রয়প্রকল্পের ঘর গুলো নির্মান হলে যাদের ঘরবাড়ী নেই তারা ঘর পাবে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম শেখ বলেন, সরকারি জায়গা সরকারি উন্নয়নেই ভরাট হচ্ছে, এখানে গ্রামের কিছু লোকজন ভুল বুঝেছিলো চেয়ারম্যান মাটি নিয়ে যাচ্ছে, এখানে সুহিলপুরের চেয়ারম্যানের কোন হাত নেই, একটি সরকারি জায়গার মাটি কেটে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মানের জন্য অন্য একটি সরকারি জায়গা ভরাট করা হচ্ছে।

এই নিউজটি শেয়ার করুন

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ০৪:২৫:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০২৩

এহসানুল হক রিপন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ ভুইঁয়ার বিরুদ্ধে আশ্রয়ন প্রকল্পের জায়গা ভরাট নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগ উঠেছে। অষ্টগ্রামের ইউপি সদস্য কামাল হোসেন প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, সরকারি জায়গাটি অনেকে ভোগ দখল করছিলো, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং এসিল্যান্ড সরকারি জায়গাটি আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য নির্ধারিত করেন এলাকার মানুষের সাথে সমঝোতার মাধ্যমে এখানে সুহিলপুরের চেয়ারম্যানের কোন হাত নেই, তালশহর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, সরকারি জায়গাটি তহশিলদারের কাছ থেকে লিজ নিয়ে অনেকে ভোগদখল করে আসছিল কিন্তুু ১৮ বছর যাবৎ তারা কোন খাজনা দেয়নি,সদর উপজেলা নির্বাহীকর্মকর্তা ও এসিল্যান্ড আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য সরকারিভাবে এ জায়গাটি সনাক্ত করেছে এবং এক জায়গার সরকারি মাটি কেটে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মানের জন্য অন্য আরেকটি সরকারি জায়গা ভরাট করা হচ্ছে। সুহিলপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভুঁইয়ার সাথে ভুল বুঝাবুঝি হইছিলো সেটা সমাধান হয়ে গেছে। সুহিলপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ ভুইঁয়া প্রতিদিনের পোস্টকে বলেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে আমি এবং আমার পরিষদের সদস্যগনকে সাথে নিয়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মানের জন্য এক জায়গার সরকারি মাটি কেটে অন্য একটি সরকারি জায়গা ভরাট করতেছি এখানে আমার কোন স্বার্থ নেই, আশ্রয়প্রকল্পের ঘর গুলো নির্মান হলে যাদের ঘরবাড়ী নেই তারা ঘর পাবে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম শেখ বলেন, সরকারি জায়গা সরকারি উন্নয়নেই ভরাট হচ্ছে, এখানে গ্রামের কিছু লোকজন ভুল বুঝেছিলো চেয়ারম্যান মাটি নিয়ে যাচ্ছে, এখানে সুহিলপুরের চেয়ারম্যানের কোন হাত নেই, একটি সরকারি জায়গার মাটি কেটে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মানের জন্য অন্য একটি সরকারি জায়গা ভরাট করা হচ্ছে।