ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভাত না দিতে বলায় পিতাকে হত্যা করলো ছেলে

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : ০৮:০৯:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩
  • / ১০৩ বার পড়া হয়েছে

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে পিতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছেন ছেলে। রোববার (৩০ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে ভাত খেতে না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে এই হত্যাকাণ্ড ঘটায় বলে জানা গেছে।
ঘাতক ছেলেকে আটক করে পুলিশে হস্তান্তর করেছে স্থানীয় জনতা। ঘটনাস্থল থেকে কমলগঞ্জ থানা-পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
নিহত রবি ঘাসী (৫২) কমলগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের বাঘাছড়া চা বাগানের ৭ নং লাইনের বাসিন্দা। অভিযুক্ত ছেলে লুকেশ ঘাসী (২৫)।
পরিবারিক সূত্রের বরাতে জানা যায়, লুকেশ ঘাসী দীর্ঘদিন ধরে বেকার, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় রাতবিরাতে ঘুরে বেড়ায়। মাঝে মধ্যে বাড়িতে আসেন। রোববার রাতে বাড়ি এসে ভাত দেওয়ার জন্য বলেন। তখন তার পিতা পরিবারের সদস্যদের বলেন, ‘এই ছেলে কোনো কাজ কাম করে না, তাকে যেন ভাত না দেওয়া হয়।’ এই কথা শুনে লুকেশ ক্ষিপ্ত হয়ে পিতাকে ধারালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন। ঘটনাস্থলেই পিতা মারা যান। পরে স্থানীয়রা ছেলেকে আটক করে কমলগঞ্জ থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।
ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোলেমান মিয়া বলেন, ‘ওই ছেলে দীর্ঘদিন ধরে নেশা করে বেকার অবস্থায় ঘোরাঘুরি করত। পরিবারের সদস্যদের ছেলেকে ভাত না দেওয়ার জন্য বলার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে পিতাকে হত্যা করেছে।’
কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্চয় চক্রবর্তী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ঘাতক ছেলেকে আটক করা হয়েছে।

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

x

ভাত না দিতে বলায় পিতাকে হত্যা করলো ছেলে

প্রকাশের সময় : ০৮:০৯:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে পিতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছেন ছেলে। রোববার (৩০ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে ভাত খেতে না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে এই হত্যাকাণ্ড ঘটায় বলে জানা গেছে।
ঘাতক ছেলেকে আটক করে পুলিশে হস্তান্তর করেছে স্থানীয় জনতা। ঘটনাস্থল থেকে কমলগঞ্জ থানা-পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
নিহত রবি ঘাসী (৫২) কমলগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের বাঘাছড়া চা বাগানের ৭ নং লাইনের বাসিন্দা। অভিযুক্ত ছেলে লুকেশ ঘাসী (২৫)।
পরিবারিক সূত্রের বরাতে জানা যায়, লুকেশ ঘাসী দীর্ঘদিন ধরে বেকার, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় রাতবিরাতে ঘুরে বেড়ায়। মাঝে মধ্যে বাড়িতে আসেন। রোববার রাতে বাড়ি এসে ভাত দেওয়ার জন্য বলেন। তখন তার পিতা পরিবারের সদস্যদের বলেন, ‘এই ছেলে কোনো কাজ কাম করে না, তাকে যেন ভাত না দেওয়া হয়।’ এই কথা শুনে লুকেশ ক্ষিপ্ত হয়ে পিতাকে ধারালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন। ঘটনাস্থলেই পিতা মারা যান। পরে স্থানীয়রা ছেলেকে আটক করে কমলগঞ্জ থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।
ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোলেমান মিয়া বলেন, ‘ওই ছেলে দীর্ঘদিন ধরে নেশা করে বেকার অবস্থায় ঘোরাঘুরি করত। পরিবারের সদস্যদের ছেলেকে ভাত না দেওয়ার জন্য বলার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে পিতাকে হত্যা করেছে।’
কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্চয় চক্রবর্তী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ঘাতক ছেলেকে আটক করা হয়েছে।