ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
‘বেরোবিতে পুলিশের গু’ লিতে নি, হত ১, আহত শতাধিক’ মৌলভীবাজারের বিশিষ্ট জনদের আন্তর্জাতিক গনতন্ত্র ও মানবাধিকার সংগঠনে মনোনীত নিজ গ্রাম থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন মেয়র প্রার্থী আওয়ামিলীগ নেতা সফিকুল ইসলাম শ্রীমঙ্গলে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে যুবককে হত্যা নবীনগর থানা প্রেসক্লাবের ত্রি-বার্ষিক কমিটি গঠন সভাপতি জসিম সম্পাদক রুবেল আইনমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে গিয়ে মেয়র ও চেয়ারম্যান গ্রুপের সংঘর্ষ নবীনগরে ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলমের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন মাথিউড়া চা শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি পরিশোধের দাবি গাজীপুরে কাভার ভ্যানের ধাক্কায় ধনেপাতার চাষীর মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের রথযাত্রা উৎসব পালিত

“যে কারণে হারুনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি স্পিকার”

রিপু
  • প্রকাশের সময় : ১২:৩৩:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ১৪১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || যে কারণে হারুনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি স্পিকার|

জাতীয় সংসদ থেকে আনুষ্ঠানিক পদত্যাগ করেছেন বিএনপির সংসদ সদস্যরা। পাঁচ সংসদ সদস্য আজ (রোববার) বেলা ১১টায় সংসদ ভবনে গিয়ে স্পিকার ড. শিরীন শারমিনের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন।

স্পিকার তাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। তাদের আসন শূন্য ঘোষণা করেন তিনি। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেনি সংসদের স্পিকার।

রোববার বেলা ১১টার দিকে বিএনপির পাঁচ সংসদ সদস্য স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। একজন অসুস্থ থাকায় এবং একজন দেশের বাইরে থাকায় তাদের পক্ষে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

পূর্ব ঘোষণা মোতাবেক আজ সশরীরে পদত্যাগপত্র দেন বগুড়া–৬ আসনের গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জাহিদুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের মো. আমিনুল ইসলাম, বগুড়া-৪ আসনের মো. মোশাররফ হোসেন এবং সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা।

বিদেশে থাকায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হারুন অর রশীদ এবং অসুস্থতার কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সংসদ সদস্য আবদুস সাত্তার সশরীরে উপস্থিত হতে পারেননি।

হারুন ইমেইলে আগেই পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন। আজ তার পক্ষে রুমিন পদত্যাগপত্রের হার্ডকপি জমা দেন।

স্পিকার ৫ জনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে আসনগুলো শুন্য ঘোষণা করেছেন। বাকি দুজনের মধ্যে উকিল আবদুস সাত্তারের বিষয়ে তিনি বলেন, উনার সেই যাচাই বাছাই করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এমপি হারুনের পদত্যাগ নিয়েই বেশি আলোচিত হচ্ছে। তাহলে কী হারুনের প্রতিনিধিত্ব সংসদে থাকছে?

এ বিষয়ে স্পিকার সাংবাদিকদের বলেন, হারুন অর রশীদ পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন ই-মেইলে, তার সই স্ক্যান করে বসানো হয়েছে। এটা গ্রহণ করা হবে না। তাকে আবার পদত্যাগপত্র পাঠাতে হবে।

সংবিধানের সংশ্লিষ্ট ধারা উল্লেখ করে স্পিকার বলেন, পদত্যাগপত্র সশরীরে এসে জমা দিতে হবে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। যে পাঁচজন পদত্যাগপত্র নিয়ে এসেছেন তাদের আসন শূন্য হয়ে গেছে। বাকি দুটি আবেদনের সই যাচাই করা হবে এবং তারাই পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন কিনা, সংসদ সচিবালয় তা খোঁজ নেবে। তবে হারুন অর রশীদ পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন ইমেইলে, তার সই স্ক্যান করে বসানো হয়েছে। এটা গ্রহণ করা হবে না, তাকে আবার পদত্যাগপত্র দিতে হবে।

বিএনপির সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, সংসদ সদস্য হারুনের পদত্যাগপত্রের মূল কপি না থাকায় তা গ্রহণ করেননি স্পিকার। কারণ বলা হয়েছে, তার পদত্যাগপত্রের মূল কপি লাগবে। মেইল থেকে প্রিন্ট করা কপি গ্রহণ করা যাবে না।

প্রসঙ্গত, শনিবার (১০ ডিসেম্বর) বিএনপির ঢাকার বিভাগীয় সমাবেশ থেকে একযোগে দলটির সব সংসদ সদস্য পদত্যাগের ঘোষণা দেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য হারুন অস্ট্রেলিয়ায় থাকায় তিনি সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন না।

ঘোষণা অনুযায়ী, আজ বেলা ১১টার দিকে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ে গিয়ে পদত্যাগপত্র জমা দিলেন বিএনপির ৫ জন।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট

এই নিউজটি শেয়ার করুন

“যে কারণে হারুনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি স্পিকার”

প্রকাশের সময় : ১২:৩৩:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || যে কারণে হারুনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি স্পিকার|

জাতীয় সংসদ থেকে আনুষ্ঠানিক পদত্যাগ করেছেন বিএনপির সংসদ সদস্যরা। পাঁচ সংসদ সদস্য আজ (রোববার) বেলা ১১টায় সংসদ ভবনে গিয়ে স্পিকার ড. শিরীন শারমিনের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন।

স্পিকার তাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। তাদের আসন শূন্য ঘোষণা করেন তিনি। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেনি সংসদের স্পিকার।

রোববার বেলা ১১টার দিকে বিএনপির পাঁচ সংসদ সদস্য স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। একজন অসুস্থ থাকায় এবং একজন দেশের বাইরে থাকায় তাদের পক্ষে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

পূর্ব ঘোষণা মোতাবেক আজ সশরীরে পদত্যাগপত্র দেন বগুড়া–৬ আসনের গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জাহিদুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের মো. আমিনুল ইসলাম, বগুড়া-৪ আসনের মো. মোশাররফ হোসেন এবং সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা।

বিদেশে থাকায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হারুন অর রশীদ এবং অসুস্থতার কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সংসদ সদস্য আবদুস সাত্তার সশরীরে উপস্থিত হতে পারেননি।

হারুন ইমেইলে আগেই পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন। আজ তার পক্ষে রুমিন পদত্যাগপত্রের হার্ডকপি জমা দেন।

স্পিকার ৫ জনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে আসনগুলো শুন্য ঘোষণা করেছেন। বাকি দুজনের মধ্যে উকিল আবদুস সাত্তারের বিষয়ে তিনি বলেন, উনার সেই যাচাই বাছাই করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এমপি হারুনের পদত্যাগ নিয়েই বেশি আলোচিত হচ্ছে। তাহলে কী হারুনের প্রতিনিধিত্ব সংসদে থাকছে?

এ বিষয়ে স্পিকার সাংবাদিকদের বলেন, হারুন অর রশীদ পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন ই-মেইলে, তার সই স্ক্যান করে বসানো হয়েছে। এটা গ্রহণ করা হবে না। তাকে আবার পদত্যাগপত্র পাঠাতে হবে।

সংবিধানের সংশ্লিষ্ট ধারা উল্লেখ করে স্পিকার বলেন, পদত্যাগপত্র সশরীরে এসে জমা দিতে হবে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। যে পাঁচজন পদত্যাগপত্র নিয়ে এসেছেন তাদের আসন শূন্য হয়ে গেছে। বাকি দুটি আবেদনের সই যাচাই করা হবে এবং তারাই পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন কিনা, সংসদ সচিবালয় তা খোঁজ নেবে। তবে হারুন অর রশীদ পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন ইমেইলে, তার সই স্ক্যান করে বসানো হয়েছে। এটা গ্রহণ করা হবে না, তাকে আবার পদত্যাগপত্র দিতে হবে।

বিএনপির সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, সংসদ সদস্য হারুনের পদত্যাগপত্রের মূল কপি না থাকায় তা গ্রহণ করেননি স্পিকার। কারণ বলা হয়েছে, তার পদত্যাগপত্রের মূল কপি লাগবে। মেইল থেকে প্রিন্ট করা কপি গ্রহণ করা যাবে না।

প্রসঙ্গত, শনিবার (১০ ডিসেম্বর) বিএনপির ঢাকার বিভাগীয় সমাবেশ থেকে একযোগে দলটির সব সংসদ সদস্য পদত্যাগের ঘোষণা দেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য হারুন অস্ট্রেলিয়ায় থাকায় তিনি সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন না।

ঘোষণা অনুযায়ী, আজ বেলা ১১টার দিকে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ে গিয়ে পদত্যাগপত্র জমা দিলেন বিএনপির ৫ জন।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট