ঢাকা , সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

“লক্ষ্য, ভারতকে হোয়াইটওয়াশ”

  • রিপু
  • প্রকাশের সময় : ০৫:৩০:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২
  • ৭৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || লক্ষ্য, ভারতকে হোয়াইটওয়াশ|

ঢাকায় টানা দুই ম্যাচ জিতে সিরিজ মুঠোয় ভরেছে বাংলাদেশ। আজ জিতলে ভারত হোয়াইটওয়াশ। সেটাই লক্ষ্য বাংলাদেশের। তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ভারতকে হারাতে মাঠে নামবে টাইগাররা। অপরদিকে শেষ ম্যাচ জিতে সম্মান বাঁচাতে লড়বে ভারত। বেলা ১২টায় শুরু হবে ম্যাচ।

ইনজুরির দরুন আজকের ম্যাচ থেকে ছিটকে গেছেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তার অনুপস্থিতিতে দলকে নেতৃত্ব দেবেন লোকেশ রাহুল। এদিকে স্পিনার কুলদীপ যাদবকে দলে নেওয়া হয়েছে।

২০১৫ সালে ভারতের বিপক্ষে প্রথম দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ। সাত বছর পর মেহেদী হাসান মিরাজের বীরত্বে আবার ঘরের মাঠে সিরিজ জয়। চট্টগ্রামে শেষ ম্যাচ জিততে পারলে প্রথমবারের মতো ওয়ানডের অন্যতম পরাশক্তি ভারতকে হোয়াইটওয়াশের স্বপ্ন পূরণ হবে বাংলাদেশের।

তামিম ইকবালের অনুপস্থিতিতে টাইগারদের অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া লিটন দাস হোয়াইটওয়াশের ইঙ্গিত আগেই দিয়ে রেখেছেন। চট্টগ্রাম আসার সময় বিমান থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে তিনি ‘মিশন পূর্ণ’ করার কথা বলে হোয়াইটওয়াশের কথাই বোঝাতে চেয়েছেন। শুক্রবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের মিডিয়া সেন্টারে প্রেস ব্রিফিংয়ে খোলাসা করলেন টাইগারদের ফিল্ডিং কোচ শেন ম্যাকডারমট। ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করার সুবর্ণ সুযোগ দেখছেন তিনি।

ম্যাকডারমট বলেন, ‘বাংলাদেশ কখনো ভারতকে ৩-০ ব্যবধানে হারায়নি। এটাই এই মুহূর্তে আমাদের সবচেয়ে বড় লক্ষ্য। না জিতলেও আমাদের যেন সহজে হারানো না যায়, সেটা নিয়ে আমরা গর্ববোধ করি। আমরা নিউজিল্যান্ডে কিছু ম্যাচে জয়ের কাছাকাছি গিয়ে হেরেছি। পাকিস্তানের বিপক্ষেও টি ২০ বিশ্বকাপে জয়ের খুব কাছাকাছি এসেছিলাম। সেমিফাইনাল খেলার সম্ভাবনাও ছিল বাংলাদেশের।’

তিনি বলেন, ‘কাজ এখনো শেষ হয়নি। জানি দল হিসাবে আমরা কিছু সাফল্য পেয়েছি। কিছু ব্যর্থতাও। কিন্তু আমরা কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচকে হালকাভাবে নিই না। আমরা প্রথম ম্যাচের পর সেটাকে পেছনে ফেলে এসে দ্বিতীয় ম্যাচটি জিতেছি।’

বাংলাদেশ চাপের মুখেও জিততে অভ্যস্ত হচ্ছে উল্লেখ করে ফিল্ডিং কোচ বলেন, ‘আমরা প্রতিযোগিতাপূর্ণ দলের মতো খেলছি। বাংলাদেশ সহজে হার মানে না। এর মানে হচ্ছে, আমরা প্রায়ই চাপের মুখে খেলছি। জয়-পরাজয় যাই হোক না কেন, আমরা সে ম্যাচ থেকে অনেক কিছু শিখতে পারি। আমি জানি দ্বিতীয় ম্যাচ জয়ের পর ছেলেরা আরও একটি জয়ের অপেক্ষায় আছে।’

শুক্রবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছে দুই দল। সকালে বাংলাদেশ দলের হালকা অনুশীলনের পর দুপুরে ভারত প্রস্তুতি সেরেছে। সিরিজ নিশ্চিত হওয়ায় সাকিব, মোস্তাফিজ, মিরাজসহ একাদশের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজনকে ছাড়াই হালকা মেজাজে অনুশীলন করতে দেখা গেছে টাইগারদের।

এদিকে সিরিজ হাতছাড়া হলেও শেষ ম্যাচে জয় ছাড়া ভারত অন্য কিছু ভাবছে না বলে জানালেন স্পিনিং অলরাউন্ডার ওয়াশিংটন সুন্দর। শুক্রবার দুপুরে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আমরা জিততে চাই। আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে চাই। কিছু বিষয় আমাদের নিশ্চিত করতে হবে। প্রক্রিয়ায় মনোযোগ দেব। ম্যাচটা জিতে ওয়ানডে সিরিজ শেষ করতে চাই।’

আগের দুই ম্যাচ ছিল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। আমরা জয়ের কাছাকাছি ছিলাম।’

২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ বড় দল, বিশেষ করে ঘরের মাঠে। উপমহাদেশে তারা খুব ভালো। আমার মনে হয়, টি ২০ বিশ্বকাপেও তারা ভালো করেছে। তারা গত কয়েকবছর ধরে ভালো ক্রিকেট খেলছে। আমি নিশ্চিত, বাংলাদেশ ভালো একটা বিশ্বকাপের স্বপ্ন দেখছে।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box
জনপ্রিয়

“লক্ষ্য, ভারতকে হোয়াইটওয়াশ”

প্রকাশের সময় : ০৫:৩০:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || লক্ষ্য, ভারতকে হোয়াইটওয়াশ|

ঢাকায় টানা দুই ম্যাচ জিতে সিরিজ মুঠোয় ভরেছে বাংলাদেশ। আজ জিতলে ভারত হোয়াইটওয়াশ। সেটাই লক্ষ্য বাংলাদেশের। তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ভারতকে হারাতে মাঠে নামবে টাইগাররা। অপরদিকে শেষ ম্যাচ জিতে সম্মান বাঁচাতে লড়বে ভারত। বেলা ১২টায় শুরু হবে ম্যাচ।

ইনজুরির দরুন আজকের ম্যাচ থেকে ছিটকে গেছেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তার অনুপস্থিতিতে দলকে নেতৃত্ব দেবেন লোকেশ রাহুল। এদিকে স্পিনার কুলদীপ যাদবকে দলে নেওয়া হয়েছে।

২০১৫ সালে ভারতের বিপক্ষে প্রথম দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ। সাত বছর পর মেহেদী হাসান মিরাজের বীরত্বে আবার ঘরের মাঠে সিরিজ জয়। চট্টগ্রামে শেষ ম্যাচ জিততে পারলে প্রথমবারের মতো ওয়ানডের অন্যতম পরাশক্তি ভারতকে হোয়াইটওয়াশের স্বপ্ন পূরণ হবে বাংলাদেশের।

তামিম ইকবালের অনুপস্থিতিতে টাইগারদের অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া লিটন দাস হোয়াইটওয়াশের ইঙ্গিত আগেই দিয়ে রেখেছেন। চট্টগ্রাম আসার সময় বিমান থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে তিনি ‘মিশন পূর্ণ’ করার কথা বলে হোয়াইটওয়াশের কথাই বোঝাতে চেয়েছেন। শুক্রবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের মিডিয়া সেন্টারে প্রেস ব্রিফিংয়ে খোলাসা করলেন টাইগারদের ফিল্ডিং কোচ শেন ম্যাকডারমট। ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করার সুবর্ণ সুযোগ দেখছেন তিনি।

ম্যাকডারমট বলেন, ‘বাংলাদেশ কখনো ভারতকে ৩-০ ব্যবধানে হারায়নি। এটাই এই মুহূর্তে আমাদের সবচেয়ে বড় লক্ষ্য। না জিতলেও আমাদের যেন সহজে হারানো না যায়, সেটা নিয়ে আমরা গর্ববোধ করি। আমরা নিউজিল্যান্ডে কিছু ম্যাচে জয়ের কাছাকাছি গিয়ে হেরেছি। পাকিস্তানের বিপক্ষেও টি ২০ বিশ্বকাপে জয়ের খুব কাছাকাছি এসেছিলাম। সেমিফাইনাল খেলার সম্ভাবনাও ছিল বাংলাদেশের।’

তিনি বলেন, ‘কাজ এখনো শেষ হয়নি। জানি দল হিসাবে আমরা কিছু সাফল্য পেয়েছি। কিছু ব্যর্থতাও। কিন্তু আমরা কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচকে হালকাভাবে নিই না। আমরা প্রথম ম্যাচের পর সেটাকে পেছনে ফেলে এসে দ্বিতীয় ম্যাচটি জিতেছি।’

বাংলাদেশ চাপের মুখেও জিততে অভ্যস্ত হচ্ছে উল্লেখ করে ফিল্ডিং কোচ বলেন, ‘আমরা প্রতিযোগিতাপূর্ণ দলের মতো খেলছি। বাংলাদেশ সহজে হার মানে না। এর মানে হচ্ছে, আমরা প্রায়ই চাপের মুখে খেলছি। জয়-পরাজয় যাই হোক না কেন, আমরা সে ম্যাচ থেকে অনেক কিছু শিখতে পারি। আমি জানি দ্বিতীয় ম্যাচ জয়ের পর ছেলেরা আরও একটি জয়ের অপেক্ষায় আছে।’

শুক্রবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছে দুই দল। সকালে বাংলাদেশ দলের হালকা অনুশীলনের পর দুপুরে ভারত প্রস্তুতি সেরেছে। সিরিজ নিশ্চিত হওয়ায় সাকিব, মোস্তাফিজ, মিরাজসহ একাদশের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজনকে ছাড়াই হালকা মেজাজে অনুশীলন করতে দেখা গেছে টাইগারদের।

এদিকে সিরিজ হাতছাড়া হলেও শেষ ম্যাচে জয় ছাড়া ভারত অন্য কিছু ভাবছে না বলে জানালেন স্পিনিং অলরাউন্ডার ওয়াশিংটন সুন্দর। শুক্রবার দুপুরে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আমরা জিততে চাই। আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে চাই। কিছু বিষয় আমাদের নিশ্চিত করতে হবে। প্রক্রিয়ায় মনোযোগ দেব। ম্যাচটা জিতে ওয়ানডে সিরিজ শেষ করতে চাই।’

আগের দুই ম্যাচ ছিল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। আমরা জয়ের কাছাকাছি ছিলাম।’

২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ বড় দল, বিশেষ করে ঘরের মাঠে। উপমহাদেশে তারা খুব ভালো। আমার মনে হয়, টি ২০ বিশ্বকাপেও তারা ভালো করেছে। তারা গত কয়েকবছর ধরে ভালো ক্রিকেট খেলছে। আমি নিশ্চিত, বাংলাদেশ ভালো একটা বিশ্বকাপের স্বপ্ন দেখছে।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box