ঢাকা , সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সীমানার বাইরে বালু উত্তোলনের দায়ে অর্থ দন্ড

  • মো. আলমগীর খন্দকার
  • প্রকাশের সময় : ১২:৩২:২৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৪
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে

মো. আলমগীর খন্দকার, নবীনগর: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নের ২০ একর কেদারখোলা পশ্চিম বালুমহালে, বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন লঙ্ঘনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে নির্ধারিত সীমানার বাহিরে বালু উত্তোলন করায় ইজারা গ্রহণকারীকে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুযায়ী ১,৫০,০০০/ (এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা অর্থদন্ড করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা জাহান। এছাড়া নির্ধারিত সীমার মধ্যে ড্রেজার চালানো, সন্ধ্যার পর ড্রেজার না চালাতে বলা হয় এবং অমান্য করলে কঠোর আইনানুগ শাস্তির আওতায় আনা হবে।

এসময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহমুদা জাহান জানান, ইতিমধ্যেই সীমানা নির্ধারণ করা হয়েছে এবং নির্ধারিত সীমানার বাইরে বালু উত্তোলন না করতে ইজারাদারদের সতর্ক করা হয়েছে। নির্ধারিত সীমানা অতিক্রম করে গ্রামের পাড়ে অপরিকল্পিত অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে জনগণের বাড়িঘর, রাস্তাঘাট ও ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়, জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Facebook Comments Box
ট্যাগস :
জনপ্রিয়

সীমানার বাইরে বালু উত্তোলনের দায়ে অর্থ দন্ড

প্রকাশের সময় : ১২:৩২:২৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৪

মো. আলমগীর খন্দকার, নবীনগর: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নের ২০ একর কেদারখোলা পশ্চিম বালুমহালে, বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন লঙ্ঘনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে নির্ধারিত সীমানার বাহিরে বালু উত্তোলন করায় ইজারা গ্রহণকারীকে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুযায়ী ১,৫০,০০০/ (এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা অর্থদন্ড করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা জাহান। এছাড়া নির্ধারিত সীমার মধ্যে ড্রেজার চালানো, সন্ধ্যার পর ড্রেজার না চালাতে বলা হয় এবং অমান্য করলে কঠোর আইনানুগ শাস্তির আওতায় আনা হবে।

এসময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহমুদা জাহান জানান, ইতিমধ্যেই সীমানা নির্ধারণ করা হয়েছে এবং নির্ধারিত সীমানার বাইরে বালু উত্তোলন না করতে ইজারাদারদের সতর্ক করা হয়েছে। নির্ধারিত সীমানা অতিক্রম করে গ্রামের পাড়ে অপরিকল্পিত অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে জনগণের বাড়িঘর, রাস্তাঘাট ও ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়, জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Facebook Comments Box