ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
‘বেরোবিতে পুলিশের গু’ লিতে নি, হত ১, আহত শতাধিক’ মৌলভীবাজারের বিশিষ্ট জনদের আন্তর্জাতিক গনতন্ত্র ও মানবাধিকার সংগঠনে মনোনীত নিজ গ্রাম থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন মেয়র প্রার্থী আওয়ামিলীগ নেতা সফিকুল ইসলাম শ্রীমঙ্গলে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে যুবককে হত্যা নবীনগর থানা প্রেসক্লাবের ত্রি-বার্ষিক কমিটি গঠন সভাপতি জসিম সম্পাদক রুবেল আইনমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে গিয়ে মেয়র ও চেয়ারম্যান গ্রুপের সংঘর্ষ নবীনগরে ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলমের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন মাথিউড়া চা শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি পরিশোধের দাবি গাজীপুরে কাভার ভ্যানের ধাক্কায় ধনেপাতার চাষীর মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের রথযাত্রা উৎসব পালিত

‘স্কুল ছাত্রীকে লাইব্ররীতে আটকে রেখে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, ছাত্রীর আ’ ত্মহ ত্যা’

প্রতিদিনের পোস্ট ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : ১২:৫৯:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০২৪
  • / ৯৯ বার পড়া হয়েছে

প্রতীকী ছবি

বরগুনার পাথরঘাটায় অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে (১৩) আটকে রেখে ধ’;র্ষ ণের অভিযোগ উঠেছে ফয়সাল ও জুবায়ের নামের দুই যুবকের বিরুদ্ধে। এঘটনার পরে লজ্জায় আ; ত্ম হ ত্যা করেছে ওই ছাত্রী। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করে কান্নায় ভেঙে পড়েন ওই স্কুলছাত্রীর বাবা।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বেলা সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত চরদুয়ানী বাজারের মিনা লাইব্রেরি অ্যান্ড কসমেটিকসের দোকানে এ ঘটনা ঘটে। পরে পার্শ্ববর্তী কয়েকজন ব্যবসায়ী তাদেরকে উদ্ধার করেন বলে জানা গেছে।

ওই স্কুলছাত্রীর বাড়ি উপজেলার কাঠালতলী ইউনিয়নের উত্তর কাঠালতলী গ্রামে। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার উত্তর কাঠালতলী এলাকার মো: বেল্লাল হোসেনের ছেলে ফয়সাল, চরদুয়ানী ইউনিয়নের ছহেরাবাদ এলাকার মোশাররফের ছেলে জোবায়ের এবং কাঠালতলী ইউনিয়নের তালুক চরদুয়ানী এলাকার মনির হোসেনের ছেলে ও লাইব্রেরি ব্যবসায়ী সাকিবুল ইসলাম হৃদয়। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

এদিকে, স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৭ জুন বৃহস্পতিবার সকালে ৮ম শ্রেণির মাদরাসাছাত্রী তন্নি তার বান্ধবীকে নিয়ে চরদুয়ানী বাজারের মিনা লাইব্রেরি এন্ড কসমেটিক্সের দোকানে কেনাকাটার জন্য প্রবেশ করে। সেখানে মুক্তা ও তন্নির পূর্ব পরিচিত জুবাইয়ের ও তার বন্ধু ফয়সাল লাইব্রেরিতে ঢুকে সাটার টেনে বন্ধ করে দেয়। পরে দোকানদার শাকিব তাদের ৪ জনকে ভিতরে রেখে বাহির থেকে তালা দিয়ে চলে যায়। সেখানে জোবায়ের স্কুল শিক্ষার্থীকে জোড় করে ধ ্‌ র্ষণ করে ভিডিও করে রাখেন। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

পরে আবার ফয়সাল গিয়ে পূর্ণরায় তাকে ধ ্‌ র্ষণ করেন। বিষয়টি বেলা দেড়টার দিকে দিকে স্থানীয় যুবকদের মধ্যে জানাজানি হয়ে যায়। পরে দোকানদার শাকিবকে তার দোকান খুলতে বাধ্য করে। এরপর ভিতরে ঢুকে স্কুলছাত্রীর মাস্ক খুলে বিভিন্ন মোবাইল দিয়ে ভিডিও ধারণ করে স্থানীয় কিছু যুবক। পরে এই ঘটনা নিয়ে সালিশ বৈঠক হবে স্থানীয়দের এমন সিদ্ধান্তে ওই দুই ছাত্রীকে তাদের অভিভাবক এনে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় জানাজানি হলে লজ্জায় দ্বিতীয় দিন শুক্রবার বসতঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁ ্‌ স দিয়ে স্কুলছাত্রী আ; ত্মহ ্‌ ত্যা করে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ব্যবসায়ী শাহাদাত ফিটার জানান, দোকানের মধ্যে দুটি ছেলে ছিল তাদের মধ্যে ফয়সাল বিবাহিত, সে তন্নির প্রেমিক। এছাড়াও জুবায়েরের সাথে ভুক্তভোগীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে দিতে ফয়সাল ও তন্নির সহযোগিতা ছিল বলে জানান তিনি।

ভুক্তভোগীর মা বলেন, ওই দিন আমার মেয়ে বাড়ি থেকে সাড়ে ৯টার দিকে স্কুলে যায়। আমি জানতাম না এরকম ঘটনা ঘটেছে। দুপুরের দিকে জানতে পেরেছি। বাড়ি এসে আমার মেয়ে আমার কাছে লাইব্রেরিতে অটকে ধর্ষণ করে ভিডিও করে রাখার বিষয়ে বলে গেছে। লোকলজ্জার ভয়ে আমরা কারো কাছে কিছুই বলিনি। এ লজ্জা আমার মেয়ে রুমের দরজা বন্ধ করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। তিনি এর সুষ্ঠু বিচার চান।

মিনা লাইব্রেরি এন্ড কসমেটিকস ব্যবসায়ী শাকিব বিষয়টি স্বীকার করে জানান, তাদেরকে ভিতরে রেখে বাহির থেকে দোকানে তালা দিয়ে পাথরঘাটা বাজারে আসেন, এর পরে কি হয়েছে তা তিনি কিছুই জানেন না।

অভিযুক্ত জুবায়েরের বাবা মোর্শারফ হোসেন জানান, এরকম একটি ঘটনার কথা আমি শুনেছি। যদি আমার ছেলে এরকমের কাজ করে থাকে তাহলে আমিও চাই তার উপযুক্ত বিচার হোক।

পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আল মামুন জানান, এক স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যার একটি ঘটনা ঘটেছে। তবে এর আগে কী ঘটেছিল তা কেউ পুলিশকে অবহিত করেনি। পরে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে একটি অ পমৃ ্‌ ত্যু মামলা করেছেন। এখন ওই ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা ধ; র্ষ ্‌ ণের অভিযোগ করছে। ধ ্‌ র্ষ; ণের বিষয়টি ম; য়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে বলা যাবে। এবং রিপোর্টের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

‘স্কুল ছাত্রীকে লাইব্ররীতে আটকে রেখে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, ছাত্রীর আ’ ত্মহ ত্যা’

প্রকাশের সময় : ১২:৫৯:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০২৪

বরগুনার পাথরঘাটায় অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে (১৩) আটকে রেখে ধ’;র্ষ ণের অভিযোগ উঠেছে ফয়সাল ও জুবায়ের নামের দুই যুবকের বিরুদ্ধে। এঘটনার পরে লজ্জায় আ; ত্ম হ ত্যা করেছে ওই ছাত্রী। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করে কান্নায় ভেঙে পড়েন ওই স্কুলছাত্রীর বাবা।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বেলা সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত চরদুয়ানী বাজারের মিনা লাইব্রেরি অ্যান্ড কসমেটিকসের দোকানে এ ঘটনা ঘটে। পরে পার্শ্ববর্তী কয়েকজন ব্যবসায়ী তাদেরকে উদ্ধার করেন বলে জানা গেছে।

ওই স্কুলছাত্রীর বাড়ি উপজেলার কাঠালতলী ইউনিয়নের উত্তর কাঠালতলী গ্রামে। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার উত্তর কাঠালতলী এলাকার মো: বেল্লাল হোসেনের ছেলে ফয়সাল, চরদুয়ানী ইউনিয়নের ছহেরাবাদ এলাকার মোশাররফের ছেলে জোবায়ের এবং কাঠালতলী ইউনিয়নের তালুক চরদুয়ানী এলাকার মনির হোসেনের ছেলে ও লাইব্রেরি ব্যবসায়ী সাকিবুল ইসলাম হৃদয়। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

এদিকে, স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৭ জুন বৃহস্পতিবার সকালে ৮ম শ্রেণির মাদরাসাছাত্রী তন্নি তার বান্ধবীকে নিয়ে চরদুয়ানী বাজারের মিনা লাইব্রেরি এন্ড কসমেটিক্সের দোকানে কেনাকাটার জন্য প্রবেশ করে। সেখানে মুক্তা ও তন্নির পূর্ব পরিচিত জুবাইয়ের ও তার বন্ধু ফয়সাল লাইব্রেরিতে ঢুকে সাটার টেনে বন্ধ করে দেয়। পরে দোকানদার শাকিব তাদের ৪ জনকে ভিতরে রেখে বাহির থেকে তালা দিয়ে চলে যায়। সেখানে জোবায়ের স্কুল শিক্ষার্থীকে জোড় করে ধ ্‌ র্ষণ করে ভিডিও করে রাখেন। মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

পরে আবার ফয়সাল গিয়ে পূর্ণরায় তাকে ধ ্‌ র্ষণ করেন। বিষয়টি বেলা দেড়টার দিকে দিকে স্থানীয় যুবকদের মধ্যে জানাজানি হয়ে যায়। পরে দোকানদার শাকিবকে তার দোকান খুলতে বাধ্য করে। এরপর ভিতরে ঢুকে স্কুলছাত্রীর মাস্ক খুলে বিভিন্ন মোবাইল দিয়ে ভিডিও ধারণ করে স্থানীয় কিছু যুবক। পরে এই ঘটনা নিয়ে সালিশ বৈঠক হবে স্থানীয়দের এমন সিদ্ধান্তে ওই দুই ছাত্রীকে তাদের অভিভাবক এনে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় জানাজানি হলে লজ্জায় দ্বিতীয় দিন শুক্রবার বসতঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁ ্‌ স দিয়ে স্কুলছাত্রী আ; ত্মহ ্‌ ত্যা করে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ব্যবসায়ী শাহাদাত ফিটার জানান, দোকানের মধ্যে দুটি ছেলে ছিল তাদের মধ্যে ফয়সাল বিবাহিত, সে তন্নির প্রেমিক। এছাড়াও জুবায়েরের সাথে ভুক্তভোগীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে দিতে ফয়সাল ও তন্নির সহযোগিতা ছিল বলে জানান তিনি।

ভুক্তভোগীর মা বলেন, ওই দিন আমার মেয়ে বাড়ি থেকে সাড়ে ৯টার দিকে স্কুলে যায়। আমি জানতাম না এরকম ঘটনা ঘটেছে। দুপুরের দিকে জানতে পেরেছি। বাড়ি এসে আমার মেয়ে আমার কাছে লাইব্রেরিতে অটকে ধর্ষণ করে ভিডিও করে রাখার বিষয়ে বলে গেছে। লোকলজ্জার ভয়ে আমরা কারো কাছে কিছুই বলিনি। এ লজ্জা আমার মেয়ে রুমের দরজা বন্ধ করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। তিনি এর সুষ্ঠু বিচার চান।

মিনা লাইব্রেরি এন্ড কসমেটিকস ব্যবসায়ী শাকিব বিষয়টি স্বীকার করে জানান, তাদেরকে ভিতরে রেখে বাহির থেকে দোকানে তালা দিয়ে পাথরঘাটা বাজারে আসেন, এর পরে কি হয়েছে তা তিনি কিছুই জানেন না।

অভিযুক্ত জুবায়েরের বাবা মোর্শারফ হোসেন জানান, এরকম একটি ঘটনার কথা আমি শুনেছি। যদি আমার ছেলে এরকমের কাজ করে থাকে তাহলে আমিও চাই তার উপযুক্ত বিচার হোক।

পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আল মামুন জানান, এক স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যার একটি ঘটনা ঘটেছে। তবে এর আগে কী ঘটেছিল তা কেউ পুলিশকে অবহিত করেনি। পরে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে একটি অ পমৃ ্‌ ত্যু মামলা করেছেন। এখন ওই ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা ধ; র্ষ ্‌ ণের অভিযোগ করছে। ধ ্‌ র্ষ; ণের বিষয়টি ম; য়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে বলা যাবে। এবং রিপোর্টের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন