ঢাকা , সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
বাংলাদেশ উদাচী শিল্পীগোষ্ঠী বেলাব থানা শাখার আয়োজনে বাংলা নববর্ষ পালিত ওয়েবসাইট তৈরিতে ৫০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে খন্দকার আইটি বেড়াতে এসে প্রবাসে ফেরা হলো না ফাহমিদার পর্যটন নগরী শ্রীমঙ্গলে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত বাসকপ নবীনগর শাখার উদ্যোগে আলোচনাসভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত মনোহরদীতে মৃত ব্যক্তিদের মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রয়াত সাংবাদিকদের স্বরণে আলোচনা সভা, ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হাল্টপ্রাইজ বোস্টন সামিটে যাবে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় বেলাবতে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী রহিমা বেগম মুয়ুরী আলফাডাঙ্গায় রমজান মাস উপলক্ষে সুলভমূল্যে ডিম,দুধ ও মাংস বিক্রি: মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী

“স্বামীকে ফাঁসাতে দুই মাসের শিশু সন্তানকে হত্যা করল মা”

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : ০২:৩০:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মার্চ ২০২৩
  • / ১৪১ বার পড়া হয়েছে

মিহির কুমার দেব, প্রতিদিনের পোস্ট.কমঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নে নিজ শিশু সন্তানকে হ’ত্যার অভিযোগ উঠেছে মা তাহমিনা আক্তারের বিরুদ্ধে। রবিবার (১২ মার্চ) রাতে পূর্বভাগ ইউনিয়নের চান্দের পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আজ সকালে তাহমিনা আক্তারকে তার বাবার বাড়ি থেকে আটক করেছে পুলিশ। বিকেলে নাসিরনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল্লাহ সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃত তাহমিনা আক্তার (২৬) উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের চান্দের পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। নিহত শিশু উপজেলার গোকর্ণ ইউনিয়নের নূরপুর গ্রামের মো. খোকন মিয়ার ছেলে সাইম (২মাস)।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১১ বছর আগে তাহমিনা ও খোকন মিয়ার মধ্যে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। এরই মধ্যে তাদের সংসারে ৪টি সন্তান জন্মগ্রহণ করে। সবশেষ ছোট ছেলে সাইম জন্ম নেওয়ার পর তার নাম রাখার সময় খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন করেন খোকন মিয়া। তাহমিনার বাবার বাড়ির কম লোকজনকে দাওয়াত দেন খোকন।

“স্বামীকে ফাঁসাতে দুই মাসের শিশু সন্তানকে হত্যা করল মা”
এমন অভিযোগ এনে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য হয়। পরদিন রাগ করে বাবার বাড়ি চলে যান তাহমিনা। পরে সেখানে এসে খোকনকে ফাঁসানোর ফন্দি করেন তাহমিনা। রোববার রাত ১১টায় সাইমকে বাড়ির পাশের পুকুরে ফেলে দেন তাহমিনা। এ সময় একই দিন রাতেই তাহমিনা পাড়ার সবাইকে বলতে থাকেন খোকন এসে তার সন্তান সাইমকে নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

এদিকে পরদিন সকালে স্থানীয়রা পুকুরে গোসল করতে গেলে একটি মরদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। তখন পুলিশ এসে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ও তাহমিনাকে আটক করে।

অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ হাবিবুল্লাহ সরকার জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে তাহমিনা তার সন্তানকে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় স্বামী খোকন তার স্ত্রী তাহমিনার বিরুদ্ধে হত্যা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

ট্যাগস :

এই নিউজটি শেয়ার করুন

x

“স্বামীকে ফাঁসাতে দুই মাসের শিশু সন্তানকে হত্যা করল মা”

প্রকাশের সময় : ০২:৩০:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মার্চ ২০২৩

মিহির কুমার দেব, প্রতিদিনের পোস্ট.কমঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নে নিজ শিশু সন্তানকে হ’ত্যার অভিযোগ উঠেছে মা তাহমিনা আক্তারের বিরুদ্ধে। রবিবার (১২ মার্চ) রাতে পূর্বভাগ ইউনিয়নের চান্দের পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আজ সকালে তাহমিনা আক্তারকে তার বাবার বাড়ি থেকে আটক করেছে পুলিশ। বিকেলে নাসিরনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল্লাহ সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃত তাহমিনা আক্তার (২৬) উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের চান্দের পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। নিহত শিশু উপজেলার গোকর্ণ ইউনিয়নের নূরপুর গ্রামের মো. খোকন মিয়ার ছেলে সাইম (২মাস)।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১১ বছর আগে তাহমিনা ও খোকন মিয়ার মধ্যে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। এরই মধ্যে তাদের সংসারে ৪টি সন্তান জন্মগ্রহণ করে। সবশেষ ছোট ছেলে সাইম জন্ম নেওয়ার পর তার নাম রাখার সময় খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন করেন খোকন মিয়া। তাহমিনার বাবার বাড়ির কম লোকজনকে দাওয়াত দেন খোকন।

“স্বামীকে ফাঁসাতে দুই মাসের শিশু সন্তানকে হত্যা করল মা”
এমন অভিযোগ এনে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য হয়। পরদিন রাগ করে বাবার বাড়ি চলে যান তাহমিনা। পরে সেখানে এসে খোকনকে ফাঁসানোর ফন্দি করেন তাহমিনা। রোববার রাত ১১টায় সাইমকে বাড়ির পাশের পুকুরে ফেলে দেন তাহমিনা। এ সময় একই দিন রাতেই তাহমিনা পাড়ার সবাইকে বলতে থাকেন খোকন এসে তার সন্তান সাইমকে নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

এদিকে পরদিন সকালে স্থানীয়রা পুকুরে গোসল করতে গেলে একটি মরদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। তখন পুলিশ এসে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ও তাহমিনাকে আটক করে।

অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ হাবিবুল্লাহ সরকার জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে তাহমিনা তার সন্তানকে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় স্বামী খোকন তার স্ত্রী তাহমিনার বিরুদ্ধে হত্যা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট