ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

“২৬ মার্চের আগেই বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা:মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী”

রিপু
  • প্রকাশের সময় : ০৫:৫৩:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ১৯১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || ২৬ মার্চের আগেই বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা:মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী|

আগামী ২৬ মার্চের আগেই বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। আজ বুধবার শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী বলেন, ‘বুদ্ধিজীবীদের তালিকা নিয়ে জাতীয় কমিটি কাজ করছে। এ পর্যন্ত ১ হাজার ৫০০ বুদ্ধিজীবীর নাম যুক্ত করেছি। নতুনভাবে আরও ১০০ আবেদন জমা পড়েছে। আশা করছি, আগামী ২৬ মার্চের আগে বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে খুব কম পরিবার আছে যারা মুক্তিযুদ্ধে তাদের স্বজন হারায়নি। আমাদের দেশে একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী আছেন, যিনি বলেন যে এতো লোক মারা যায়নি। যুদ্ধে এতো হত্যাকাণ্ড হয়নি। প্রকৃত শহীদের সংখ্যা বিতর্কিত করার জন্য তিনি এসব বলছেন।’

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানিরা আত্মসমর্পণ করেছিল। কিন্তু তাদের দোসররা আত্মসমর্পণ করেনি। তারা এদেশে ঘাপটি মেরে আছে। তারা সব সময় দেশবিরোধী চক্রান্ত করছে

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট

এই নিউজটি শেয়ার করুন

“২৬ মার্চের আগেই বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা:মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী”

প্রকাশের সময় : ০৫:৫৩:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || ২৬ মার্চের আগেই বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা:মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী|

আগামী ২৬ মার্চের আগেই বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। আজ বুধবার শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী বলেন, ‘বুদ্ধিজীবীদের তালিকা নিয়ে জাতীয় কমিটি কাজ করছে। এ পর্যন্ত ১ হাজার ৫০০ বুদ্ধিজীবীর নাম যুক্ত করেছি। নতুনভাবে আরও ১০০ আবেদন জমা পড়েছে। আশা করছি, আগামী ২৬ মার্চের আগে বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে খুব কম পরিবার আছে যারা মুক্তিযুদ্ধে তাদের স্বজন হারায়নি। আমাদের দেশে একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী আছেন, যিনি বলেন যে এতো লোক মারা যায়নি। যুদ্ধে এতো হত্যাকাণ্ড হয়নি। প্রকৃত শহীদের সংখ্যা বিতর্কিত করার জন্য তিনি এসব বলছেন।’

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানিরা আত্মসমর্পণ করেছিল। কিন্তু তাদের দোসররা আত্মসমর্পণ করেনি। তারা এদেশে ঘাপটি মেরে আছে। তারা সব সময় দেশবিরোধী চক্রান্ত করছে

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ । রিপু /প্রতিদিনের পোস্ট