০৫:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নবীগঞ্জে প্রথমবারে মতো মেশিনের সাহায্যে কৃষি জমিতে চারা রোপন

  • ডেস্ক নিউজ Post
  • আপডেট : ০৫:৫৭:০৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩
  • ১৩ বার পড়া হয়েছে

ছবি প্রতিদিনের পোস্ট

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার জোয়াল ভাঙ্গা হাওরে কৃষি সমাবেবেশের মাধ্যমে নতুন বিপ্লব সৃষ্টি হয়েছে। এবার হাওরে বোরো ছাড়া রোপনে নতুন মাত্রা যোগ হওয়ার জন্য কৃষিক্ষেত্রে। শ্রমিক ছাড়াই প্রতি ঘন্টায় এক একর জমি রোপন করা যাবে। ফলে শীত মওসুমে ঠান্ডার মধ্যে কৃষকদের কষ্ট কমে যাবে।

নবীগঞ্জে প্রথমবারে মতো শুরু হয়, জোয়াল ভাঙা হাওরে সমলয় অনুষ্ঠানের কৃষি সমাবেশে মেশিনের মাধ্যমে বোরো ধানের ছাড়া রোপন শুরু করেন নবীগঞ্জ কৃষি বিভাগ।
নবীগঞ্জে_প্রথমবারে_মতো_মেশিনের_সাহায্যে_কৃষি_জমিতে_চারা_রোপন

নবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিমের সভাপতিত্বে ও উপসহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা অজিত রঞ্জন দাশের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারনের পরিচালক মো. নুরে আলম সিদ্দিকী, বিশেষ অতিথি ছিলেন নবীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এ কে এম মাকসুদুল আলম, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি এম,এ আহমদ আজাদ, নবীগঞ্জ উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা শৈলন কুমার পাল।

বক্তব্য রাখেন কৃষক মোঃ ওমর আলী,সেলিম মিয়া প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্য কালে মো.নুরে আলম সিদ্দিকী বলেন,সরকার বলছে, যন্ত্রের ব্যবহার বাড়িয়ে কৃষকের সময়, শ্রম ও ব্যয় কমাতে চায় তারা। এর মাধ্যমে চাষের খরচ কমে আসলে ধান চাষ আবার লাভজনক হয়ে উঠবে বলে আশা করছে তারা।যখন ফসলের মাঠে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে চেষ্টা করছে। তখন ধান চাষ পদ্ধতি পাল্টে দেয়ার স্বপ্ন দেখাচ্ছে ‘সমলয়’নামে একটি উদ্যোগ।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box
সম্পাদনাকারীর তথ্য

ডেস্ক নিউজ Post

জনপ্রিয়

শিক্ষিত লোকদের আমাকে ‘স্যার’ বলতে হবে, তাই ফলাফল এমন করা হয়েছে : হিরো আলম

error: Content is protected !!

নবীগঞ্জে প্রথমবারে মতো মেশিনের সাহায্যে কৃষি জমিতে চারা রোপন

আপডেট : ০৫:৫৭:০৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার জোয়াল ভাঙ্গা হাওরে কৃষি সমাবেবেশের মাধ্যমে নতুন বিপ্লব সৃষ্টি হয়েছে। এবার হাওরে বোরো ছাড়া রোপনে নতুন মাত্রা যোগ হওয়ার জন্য কৃষিক্ষেত্রে। শ্রমিক ছাড়াই প্রতি ঘন্টায় এক একর জমি রোপন করা যাবে। ফলে শীত মওসুমে ঠান্ডার মধ্যে কৃষকদের কষ্ট কমে যাবে।

নবীগঞ্জে প্রথমবারে মতো শুরু হয়, জোয়াল ভাঙা হাওরে সমলয় অনুষ্ঠানের কৃষি সমাবেশে মেশিনের মাধ্যমে বোরো ধানের ছাড়া রোপন শুরু করেন নবীগঞ্জ কৃষি বিভাগ।
নবীগঞ্জে_প্রথমবারে_মতো_মেশিনের_সাহায্যে_কৃষি_জমিতে_চারা_রোপন

নবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিমের সভাপতিত্বে ও উপসহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা অজিত রঞ্জন দাশের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারনের পরিচালক মো. নুরে আলম সিদ্দিকী, বিশেষ অতিথি ছিলেন নবীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এ কে এম মাকসুদুল আলম, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি এম,এ আহমদ আজাদ, নবীগঞ্জ উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা শৈলন কুমার পাল।

বক্তব্য রাখেন কৃষক মোঃ ওমর আলী,সেলিম মিয়া প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্য কালে মো.নুরে আলম সিদ্দিকী বলেন,সরকার বলছে, যন্ত্রের ব্যবহার বাড়িয়ে কৃষকের সময়, শ্রম ও ব্যয় কমাতে চায় তারা। এর মাধ্যমে চাষের খরচ কমে আসলে ধান চাষ আবার লাভজনক হয়ে উঠবে বলে আশা করছে তারা।যখন ফসলের মাঠে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে চেষ্টা করছে। তখন ধান চাষ পদ্ধতি পাল্টে দেয়ার স্বপ্ন দেখাচ্ছে ‘সমলয়’নামে একটি উদ্যোগ।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box