ঢাকা , শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে হেলিকপ্টারে বিয়ে করে কামরুলের স্বপ্ন পূরণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, প্রতিদিনের পোস্ট.কম || হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের মাধ্যমে স্বপ্ন পূরণ করলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার সোদিআরব প্রবাসী মোঃ কামরুল সরকার।

আজ ৩রা মার্চ শুক্রবার পাশ্ববর্তী কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের বি-চাপিতলা গ্রামের মোঃ মনির হোসেন ও রাজিয়া আক্তারের একমাত্র মেয়ে কাকুলী আক্তারকে বউ করেন তিনি।

মোঃ কামরুল সরকার নবীনগর উপজেলার ভিটিবিষাড়া গ্রামের মোঃ মুর্শিদ মেম্বার ও ঝরিনা খাতুন দম্পতীর ছোট ছেলে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বেলা ৩টার দিকে বি-চাপিতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে হেলিকপ্টার চড়ে আসে বর। চারপাশে ততক্ষণে হেলিকপ্টারে চড়ে আসা বরতে এক নজর দেখতে উৎসুক জনতার বেশ ভিড় জমে উঠে। কিছুক্ষণ পরই বরবেশে কামরুল হেলিকপ্টার থেকে নেমে আসেন। পাশেই অপেক্ষা করছিল ফুল দিয়ে সাজানো বিয়ের গাড়ি। তাতে চড়েই বর রাজকন্যাকে আনতে যান।

পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়রা প্রতিদিনের পোস্টকে জানান, কামরুল সরকার সৌদিআরব প্রবাসী। ছোটবেলা থেকেই তার ইচ্ছে ছিল হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করার। তাই নিজের স্বপ্ন পূরণ করতেই হেলিকপ্টার ভাড়া করে বিয়ে করেন তিনি।

এব্যাপারে বর মোঃ কামরুল সরকার প্রতিদিনের পোস্টকে জানান, ছোটবেলা থেকে ইচ্ছে ছিল হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করার। আজ আমার সে ইচ্ছে পূরণ হয়েছে। এ জন্য আল্লাহর কাছে তিনি শুকরিয়া আদায় করেন।

এদিকে নিজের স্বপ্ন পূরণ এবং বিয়ের সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে সন্ধ্যার আগেই কনেকে নিয়ে বর কামরুল ফের আকাশে উড়ে যান হেলিকপ্টারে চড়ে। বিকট শব্দে আকাশে ওঠে হেলিকপ্টার। আর মেঘের দেশ পাড়ি দিয়ে ইট, কাঠ, পাথরের শহরে পাড়ি জমান একালের রাজপুত্র আর রাজকন্যা।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box
জনপ্রিয়

নবীনগরে হেলিকপ্টারে বিয়ে করে কামরুলের স্বপ্ন পূরণ

প্রকাশের সময় : ০২:৪৬:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মার্চ ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, প্রতিদিনের পোস্ট.কম || হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের মাধ্যমে স্বপ্ন পূরণ করলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার সোদিআরব প্রবাসী মোঃ কামরুল সরকার।

আজ ৩রা মার্চ শুক্রবার পাশ্ববর্তী কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের বি-চাপিতলা গ্রামের মোঃ মনির হোসেন ও রাজিয়া আক্তারের একমাত্র মেয়ে কাকুলী আক্তারকে বউ করেন তিনি।

মোঃ কামরুল সরকার নবীনগর উপজেলার ভিটিবিষাড়া গ্রামের মোঃ মুর্শিদ মেম্বার ও ঝরিনা খাতুন দম্পতীর ছোট ছেলে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বেলা ৩টার দিকে বি-চাপিতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে হেলিকপ্টার চড়ে আসে বর। চারপাশে ততক্ষণে হেলিকপ্টারে চড়ে আসা বরতে এক নজর দেখতে উৎসুক জনতার বেশ ভিড় জমে উঠে। কিছুক্ষণ পরই বরবেশে কামরুল হেলিকপ্টার থেকে নেমে আসেন। পাশেই অপেক্ষা করছিল ফুল দিয়ে সাজানো বিয়ের গাড়ি। তাতে চড়েই বর রাজকন্যাকে আনতে যান।

পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়রা প্রতিদিনের পোস্টকে জানান, কামরুল সরকার সৌদিআরব প্রবাসী। ছোটবেলা থেকেই তার ইচ্ছে ছিল হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করার। তাই নিজের স্বপ্ন পূরণ করতেই হেলিকপ্টার ভাড়া করে বিয়ে করেন তিনি।

এব্যাপারে বর মোঃ কামরুল সরকার প্রতিদিনের পোস্টকে জানান, ছোটবেলা থেকে ইচ্ছে ছিল হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করার। আজ আমার সে ইচ্ছে পূরণ হয়েছে। এ জন্য আল্লাহর কাছে তিনি শুকরিয়া আদায় করেন।

এদিকে নিজের স্বপ্ন পূরণ এবং বিয়ের সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে সন্ধ্যার আগেই কনেকে নিয়ে বর কামরুল ফের আকাশে উড়ে যান হেলিকপ্টারে চড়ে। বিকট শব্দে আকাশে ওঠে হেলিকপ্টার। আর মেঘের দেশ পাড়ি দিয়ে ইট, কাঠ, পাথরের শহরে পাড়ি জমান একালের রাজপুত্র আর রাজকন্যা।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ /প্রতিদিনের পোস্ট

Facebook Comments Box